ঢাবিতে চান্স পেলো মায়ের কোলে চড়ে পরীক্ষা দিতে আসা সেই ছেলেটি

আমাদের প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৬:৩৭

 ঢাবিতে চান্স পেলো মায়ের কোলে চড়ে পরীক্ষা দিতে আসা সেই ছেলেটি

মায়ের অসাধারণ ত্যাগ, পরিশ্রম ও ভালবাসার সাথে কারো ভালোবাসার কখনোই তুলনা হয়। মা শুধুই মা। চিরঞ্জীব এই কথাগুলোর আবারও ফুটে উঠেছে একটি ছবিতে। আর ভাইরাল ছবির সেই ছেলেটির নাম হৃদয় সরকার। চান্স পেয়ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। মায়ের স্বপ্নপূরণ হয়েছে। 

তিনি খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৩৭৪০ তম হয়েছে। মেধায় পাশ করলেই কেবল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিবন্ধি কোটা পাওয়া যায়। আর তাই আশা করা হচ্ছে, তিনি ঢাবির ভালো একটি সাবজেক্টে পড়ার সুযোগ পাবেন। 

ছেলেটার বাড়ি নেত্রকোনায়। তার সমস্যা হলো সে হাঁটতে পারেনা। এছাড়া তার হাতের সব আঙ্গুলও কাজ করেনা। তাই মা ছেলেকে কোলে করে নিয়ে আসেন ঢাকা ভার্সিটির ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে।

শারীরিক প্রতিবন্ধী ওই শিক্ষার্থীর ছবি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘খ’ ইউনিটে অংশ নিতে আসেন ওই শিক্ষার্থী। ছবিটি তুলেছেন ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগ, চতুর্থ বর্ষের ছাত্র এম এ আল মামুন। 

এ বিষয়ে নেত্রকোনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারিয়া নুরুদ্দিন বলেন, ‘ফেসবুকে আমিও ওই ভাইয়ার ছবি দেখলাম। আমাদের এলাকাতেই তাদের বাড়ি। ছোট থেকেই দেখে আসছি তার মায়ের কোলে চড়েই স্কুল-কলেজে আসা যাওয়া করে। এখন পর্যন্ত তাকে যতবার দেখেছি তার মায়ের কোলেই দেখেছি।’

জানা যায়, কলেজে থাকতে প্রতিদিন মা ওকে ৪তলা করে উপরে উঠাতো আর নামাতো। মায়ের জোরেই সে এই পর্যন্ত এসেছে এবং এবার এইচএসসিতে ৪.৫০ পেয়েছে আর ভর্তি পরীক্ষাও নাকি ভালোই দিয়েছে।

 

আরও পড়ুন...