আন্দোলন-বিক্ষোভে মন নেই, জনগণ ভোটের অপেক্ষায় : ওবায়দুল কাদের

আমাদের প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ০৯ নভেম্বর ২০১৮ ১৪:১৭

আন্দোলন-বিক্ষোভে মন নেই, জনগণ ভোটের অপেক্ষায় : ওবায়দুল কাদের

‘জনগণ আন্দোলনে নেই, তারা নির্বাচনমুখী’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর আন্দোলন কর্মসূচি মেনে নেওয়া যায় না। আন্দোলন-বিক্ষোভে মন নেই মানুষের। জনগণ এখন ভোটের অপেক্ষায়।’

আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজ এলাকা গোপালগঞ্জ-৩ আসনের জন্য ফরম সংগ্রহ করে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় ৩/এ তে এই কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়।

মনোনয়ন কার্যক্রম উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের অাইন মেনেই তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। এখন নির্বাচন কমিশনের অধীনের সমস্ত বিষয়। তফসিল ঘোষণার পর অামরা একটা নিয়মের মধ্যে চলে গেছি।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে আ.লীগ সম্পাদক বলেন, ‘তফসিল ঘোষণার পর কেউ অান্দোলনের কর্মসূচি দেবে, এটা গণতন্ত্রের পরিপন্থি। তাদের অান্দোলনে জনগণ সায় দেবে না। জনগণ এখন নির্বাচনমুখী। আন্দোলন-বিক্ষোভে মন নেই মানুষের। জনগণ এখন ভোটের অপেক্ষায়।’

সংলাপের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে অা.লীগের সংলাপের ফলাফল শূন্য এটা বলা যাবে না। তারা (ঐক্যফ্রন্ট) যে লিষ্ট দিয়েছে, তা নিয়ে কাজ শুরু করা হয়েছে।

বিএনপি নির্বাচনে আসবে কী না বা তারা আন্দোলনের যে পরিকল্পনা করছে এ নিয়ে প্রশ্নের উত্তরে কাদের বলেন, ‘এখন বিএনপি নেতাদের কথা শুনে মনে হচ্ছে তারা নির্বাচনে আসবেন। কিন্তু বিএনপি যতই আন্দোলনের হুমকি দিক না কেন, কোনোটাই কাজে আসবে না।’

দলের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচন। দেশের জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দেবেন। এ সময় সব দলকে নির্বাচনে আসার আহ্বান জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

এদিন গোপালগঞ্জ-৩ আসনের ফরম ছাড়াও শেখ হাসিনার জন্য আরও একটি আসনের ফরম সংগ্রহ করেন ওবায়দুল কাদের। তবে সেটি কোন এলাকার তা জানা যায়নি। ফরমটি কোন আসনের তা পরে প্রকাশ করা হবে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

প্রধানমন্ত্রীর পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর পক্ষে ফরম কিনেছেন আ স ম ফিরোজ। পরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের জন্য নোয়াখালী-৫ আসনের একটি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অাওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল হানিফ, জাহাঙ্গীর করির নানক, অাব্দুর রহমান, সাংগঠনিক অা ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, অাহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাছান নওফেল, দপ্তর সম্পাদক অাব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

 

আরও পড়ুন...