বায়নার টাকা ফেরত না দেওয়ায় যুবকের কান কর্তন

আমাদের প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ০৯ জুন ২০১৮ ১৮:১২

বায়নার টাকা ফেরত না দেওয়ায় যুবকের কান কর্তন

খড়ের পালা কেনার বায়নার টাকা ফেরত না দেওয়ায় ফরিদুল ইসলাম (২৬) নামে এক যুবককে মারধর করার পর কান কেটে দিয়েছে তিন ব্যবসায়ী। শুক্রবার রাতে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ফরিদুল ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। তাকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শ্রবণ ইন্দ্রিয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। 

শনিবার দুপুরে ফরিদুলের মা ফরিদা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, গত মার্চ মাসে বিনসাড়া গ্রামের খড় ব্যবসায়ী জামাল, ইব্রাহিম ও আউয়াল ২৫ হাজার টাকায় একটি খড়ের গাদা কিনে বায়না বাবদ ১১ হাজার টাকা দেন। পরে খড়ের দাম কমে যাওয়ায় ওই ব্যবসায়ীরা খড় না নিয়ে বায়নার টাকা ফেরত চান। ফরিদুল টাকা ফেরত না দিয়ে খড়ের পালা নিতে বলেন তাদের। এরই জের ধরে শুক্রবার রাতে ফরিদুল বিনসাড়া বাজারে গেলে ওই তিন ব্যবসায়ী তাকে আটক করে। এ সময় তারা তাকে মারধর করে এক পর্যায়ে ডান কানে ছুরিকাঘাত করে। এতে তার কান কেটে যায়। তবে অল্পের জন্য শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়নি কানটি। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রাতেই সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ফয়সাল আহম্মেদ বলেন, ফরিদুলের কানের অপারেশন করতে হবে। তার কানের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অপারেশন করলেও শ্রবণশক্তিতে সমস্যা হতে পারে। 

এ বিষয়ে তাড়াশ থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঘটনাটি শুনেছি। তবে পরিবার থেকে এখনও থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়নি। অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

 

 

আরও পড়ুন...