চরম শিডিউল বিপর্যয়, ১০ ফ্লাইট বাতিল

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

বিমান সংকটের কারণে চরম শিডিউল বিপর্যয়ে পড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্যাশ-৮কিউ৪০০ মডেলের একটি বিমান বিধ্বস্ত হওয়ায় এই সংকট দেখা দিয়েছে। এতে অন্তত ১০টি ফ্লাইট বাতিল করতে হয়েছে কর্তৃপক্ষকে।

বুধবার উড়োজাহাজ সংকটে তিনটি ফ্লাইট বাতিল করে বিমান। এতে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। আজ শুক্রবার ও আগামীকাল শনিবার মিলে আরো ৭টি ফ্লাইট বাতিল করা হলো। এ নিয়ে মোট ১০টি ফ্লাইট বাতিল করেছে বাংলাদেশ বিমান।

মিয়ানমারে বিধ্বস্ত ড্যাশ৮কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ঢাকা থেকে সৈয়দপুর, রাজশাহী, বরিশাল, যশোর এবং সিলেট, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটে বোয়িং ৭৮৭, ৭৭৭ ও ৭৩৭ উড়োজাহাজ ব্যবহার করা হয়।

বিমানের বহরে ১৩টি উড়োজাহাজ রয়েছে। এরমধ্যে দু’টি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার, চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০, চারটি ৭৩৭-৮০০ ও তিনটি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ। তবে বহরে থাকা একটি বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ মেরামতের জন্য গ্রাউন্ডেড রয়েছে। এছাড়া মিয়ানমারে সংঘটিত দুর্ঘটনায় বিকল হলো একটি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ।

বিমানের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল গণমাধ্যমকে জানান, প্রতিটি উড়োজাহাজের নির্ধারিত শিডিউল থাকে। এতো স্বল্প সময়ে উড়োজাহাজ সংগ্রহ করাও সহজ নয়। তারপরও সংকট নিরসনে কাজ করা হচ্ছে।

 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।