যে কারণে পুরুষদের চেয়ে নারীদের বেশি ঘুম প্রয়োজন

news-details
লাইফস্টাইল

।। লাইফস্টাইল ডেস্ক ।।

একজন মানুষের কতটুকু ঘুমের প্রয়োজন, তা যেমন বয়সের ওপর নির্ভর করে, তেমনি সেই মানুষটি নারী না পুরুষ, তার ওপরেও নির্ভর করে। সম্প্রতি এমনটিই জানানো হয়েছে এক গবেষণায়।  

ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন জানাচ্ছে যে, ২৬ থেকে ৬৪ বছর বয়সীদের দিনে সাত থেকে নয় ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। ৬৪ বছরের ঊর্ধ্বে যারা, তাদের দিনে সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। টিনএজারদের জন্য প্রয়োজন দিনে নয় থেকে ১০ ঘণ্টার ঘুম। আর স্কুল পড়ুয়াদের আরও বেশি।

গবেষণায় দেখা গেছে, একজন প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষের চেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক নারীর ২০ মিনিট অতিরিক্ত ঘুম প্রয়োজন। কারণ, নারীদের ঘুম পুরুষদের তুলনায় পাতলা হয়। সাউন্ড স্লিপ না হওয়ার কারণে নারীদের ঘুমের সময় আরও একটু বাড়ানো দরকার।

নারীরা সারা দিন পুরুষদের থেকে বেশি ব্যস্ত থাকায় সকালে সবার আগে ঘুম থেকে ওঠেন। এ ছাড়া ঘরের কাজকর্ম করা ও সবার খেয়াল রাখতে গিয়ে দিনের শেষে একজন পুরুষের তুলনায় একজন নারী বেশি ক্লান্ত থাকেন। সারা দিনে মাল্টি টাস্কিং করার জন্য তাদের মানসিক ক্লান্তিও বেশি হয়। তাই তাদের একটু বেশি বিশ্রামের প্রয়োজন।

এ ছাড়া একটা বয়সের পর শরীরে হরমোনাল তারতম্যের কারণে অনেক নারীর ঘুম খুব পাতলা হয়ে যায়। আমরা জানি যে, পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি মোটা হয়ে যায়। ঘুমের অভাব এর একটা বড় কারণ। ঘুম কম হলে শরীরে স্ট্রেস হরমোনের নিঃসরণ হয়। এর থেকেও পুরুষদের থেকে আগে বুড়িয়ে যান নারীরা। তাই তাদের ঘুমের প্রয়োজম একটু বেশি।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।