জীবিতদের বাঁচাতে নেট সেট করতে অনুরোধ

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

রাজধানীর বনানীর এফ আর টাওয়ারে লাগা আগুন ছড়িয়ে গেছে আশেপাশের অনেক ভবনে। তবে এই মুহূর্তে আগুনের তীব্রতা কমে এলেও, ধোঁয়ার কুন্ডলিতে ছেয়ে গেছে চারিদিক। ২২ তলা ভবনের চার/পাঁচটি ফ্লোরে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে, ধোঁয়ার কারণে ভবনের সিঁড়িগুলোও অন্ধকারে ঢেকে গেছে। এজন্য আটকে পড়া মানুষজন জানালার কাঁচ ভেঙে হাত নেড়ে নিজেদের অবস্থান জানাচ্ছেন। বাঁচার আকুতি জানিয়ে এরই মধ্যে ফেইসবুক পেইজেও লাইভ করেছেন অনেকেই।

আগুনের ভয়াবহতায় হতবিহ্বল অনেকেই উঁচু ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ছেন। জীবিতদের বাঁচাতে, ভবনগুলো আশেপাশে লম্বা নেট সেট করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। যেন লাফিয়ে পড়লেও যেন অন্তত: তারা বাঁচতে পারেন।

এদিকে, এখানে ঠিক কত মানুষ কাজ করতেন সে বিষয়ে সঠিক সংখ্যা জানা যায়নি। চার বাহিনী সম্মিলিতভাবে আগুন নেভানোর কাজ করছে। মোটা পাঁচটি ফ্লোরে তারা পানি ছিটাতে পেরেছেন।

হেলিকপ্টারে করে ছাদ থেকে লোক সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর পাশাপাশি এলাকাবাসী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উদ্ধার কাজে সহায়তা করছেন। তারাই গণমাধ্যমকর্মীদের মাধ্যমে ভবনগুলো আশেপাশে লম্বা নেট সেট করতে অনুরোধ করছেন। তবে, এক সঙ্গে এত মানুষকে নামানো সম্ভব হচ্ছে না 

আগুনের ভয়াবহতা থেকে ধারণা করা হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে। বানিজ্যিক ভবন হওয়ায় এবং আজ একটি কর্ম দিবসের কারণে ভবনটিতে বহু সংখ্যক লোক আটকে পড়েছেন। রাস্তার দু’পাশে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মানব দেওয়াল তৈরি করে রেখেছেন যাতে, উদ্ধারকর্মী ও এ্যাম্বুলেন্স যাতায়াতে বাধা না হয়।

উদ্ধারকৃতদের আনেকেই জ্ঞান হারিয়েছেন। এরই মধ্যে ২৬ জনকে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া ঢাকা মেডিক্যালে আহত অবস্থায় তিনজন ভর্তি করা হয়েছে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।