শুরুটাই ‘দারুণ’ চান সুজন

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

ভারতের বিপক্ষে আজ প্রস্তুতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। তাই এই ম্যাচ মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ইংলিশ কন্ডিশন ও উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে দলের প্রতিটি ক্রিকেটারের জন্য আজই শেষ সুযোগ।  তবে বাংলাদেশ দলের টিম ম্যানেজার ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন মনে করেন প্রস্তুতি ম্যাচ যেমনই হোক মূল পর্বের প্রথম ম্যাচেই দারুণ কিছু করতে হবে। সেটিই হবে টাইগারদের বিশ্বকাপে বড় লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা। বলার অপেক্ষা রাখে না তিনি তাকিয়ে আছেন ২রা জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের দিকে। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। দ্বিতীয় দিনও আছে শঙ্কায়। কারণ গতকাল হঠাৎ করেই কার্ডিফের আকাশ মুখ কালো করে গুমট হয়ে যাচ্ছিল। দুই একবার বৃষ্টির ফোটাও ঝরে। তাই আজ দুই দলের প্রস্তুতির জন্য বড় প্রতিপক্ষ বৃষ্টি। যদি শেষ পর্যন্ত এই ম্যাচও মাঠে না গড়ায় তাহলে কতটা ক্ষতি হবে বাংলাদেশের!

এ নিয়ে সুজন বলেন, ‘আসলে বৃষ্টির উপরতো কারো হাত নেই। এখন যদি শেষ পর্যন্ত খেলা না হয় তাহলে একটু সমস্যাতো হবেই। কারণ উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার একটি সুযোগ ছিল আমাদের। তবে আমার বিশ্বাস বাংলাদেশ দল এখন যে অবস্থাতে আছে তাতে মনোবল ভাঙবে না। আমাদের এখন একটাই লক্ষ্য দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে দারুণ কিছু করে এগিয়ে যাওয়ার।’ 

ভারত মানেই এখন বাংলাদেশ দলের অন্যতম প্রতিপক্ষ। তাই এটি প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও ছড়াচ্ছে অন্যরকম উত্তেজনা। তাই বাংলাদেশ দলের প্রত্যেককেই দিতে হবে সবটুকু উজার করে। এই ম্যাচ নিয়ে সুজন বলেন, ‘প্রস্তুতি ম্যাচে আমাদের সুযোগ আছে সব ক্রিকেটারকে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দেখে নেয়ার। ব্যাটসম্যানদের যেমন সুযোগ তেমনি বোলারদেরও। বিশেষ করে উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার সুযোগ আছে আমাদের।’ অন্যদিকে দলের সহঅধিনায়ক সাকিব আল হাসানের আজও ভারতের বিপক্ষে খেলার বিষয়টি অনেকটাই অনিশ্চিত। তার খেলার বিষয়ে পরিষ্কার করে টিম ম্যানেজার সুজনও কিছু বলতে পারেননি। সুজন বলেন, সাকিবের খেলা নিশ্চিত কিনা বলতে পারি না। আমরা শুরু থেকেই চেয়েছিলাম দলের কয়েকজন সেরা ক্রিকেটারকে বিশ্রামে রাখতে। যদি প্রয়োজন হয় খেলবে। না হলে খেলবে না।’  

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন স্টেডিয়ামে গতকাল অনুশীলনে বেশ ঘাম ঝরিয়েছে বাংলাদেশ দল। বিশেষ করে ভারতের বিপক্ষে ব্যাটসম্যানদের চ্যালেঞ্জটাই বেশি। দলের সব ব্যাটসম্যানই নেটে সময় দিয়েছেন। বিশেষ করে সাব্বির রহামন, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকারকে ব্যাটিংয়ে বেশ মনোযোগী দেখা যায়। বোলিংয়ে  মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফুদ্দিন, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহীরা বেশ সময় কাটান। প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও এটাকে হালকাভাবে নেয়ার সুযোগ নেই। বিশেষ করে তরুণ ও নতুন ক্রিকেটারদের জন্য ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ। পাকিস্তানের বিপক্ষে দলের অন্যতম ওপেনার তামিম ইকবালের মাঠে নামা নিশ্চিত ছিল।  ভারতের বিপক্ষে বিশ্রাম দেয়ার কথা ছিল তাকে।  কিন্তু প্রথম ম্যাচ না হওয়াতে আজ তামিমকে ভারতের বিপক্ষে মাঠে দেখা যাবে তা নিশ্চিত। সিনিয়রদের তুলনাতে আজ দলের তরুণ ক্রিকেটারদের উপরই চাপ বেশি থাকবে। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ঝড় তুলে দলকে জয় এনে দেয়া  মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত তেমনি মনে করেন। মোসাদ্দেক বলেন, ‘একটা সময় সিনিয়ররা জয়ে বড় ভূমিকা রাখতো। কথা হচ্ছিল জুনিয়ররা দায়িত্ব নিতে পারে না। কিন্তু আমি মনে করি না এখন তা আছে। আমাদের যে দায়িত্ব আমরা শতভাগ দিয়ে খেলার চেষ্টা করবো।’   

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।