যুবলীগ নেতার বাড়িতে আগুন, ছাত্রদল নেতাসহ আটক ২

news-details
দেশজুড়ে

  ।। ধামরাই প্রতিনিধি ।।

ঢাকার ধামরাইতে ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শিতল সরকারের বাড়িতে আগুন দিয়ে একটি টিনের ঘর পুরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের বরাকৈর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কুল্লা ইউনিয়ন ছাত্রদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদকসহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ আটক ব্যক্তিদের তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠায়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিবাগত রাতে কুল্লা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বরাকৈর গ্রামের সংখ্যালঘু শিতল সরকারের বাড়িতে আগুন জ্বলে ওঠে। এ সময় আশপাশে লোকজন এগিয়ে এসে আগুন আগুন বলে চিৎকার করে। খরাচর গ্রামের ছাত্রদলকর্মী আবদুল মান্নানকে (২৮) দৌঁড়ে পালিয়ে যেতে দেখে আটক করে এলাকাবাসী। পরে তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিলে ওই রাতেই কুল্লা ইউনিয়ন ছাত্রদলের যগ্মসাধারণ সম্পাদক মো. আপন ফকিরকে (৩২) আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় আজ সকালে ওই যুবলীগ নেতা শিতল সরকার বাদী হয়ে দুজনকে এজাহারভুক্ত ও অজ্ঞাতনামা চারজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে শিতল সরকার বলেন, নৌকার বিজয় হওয়ায় বিএনপির নেতাকর্মীরা আমার বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। আমার একটি টিনের ঘর পুড়ে দুই লাখ টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিপক চন্দ্র সাহা বলেন,সংখ্যালঘু শিতল সরকারের বাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনায় ছাত্রদল নেতাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জড়িত বাকিদের গ্রেপ্তার করা হবে।

You can share this post on
Facebook

0 Comments

If you want to comment please Login. If you are not registered then please Register First