টাইগারদের জয়ে তারকাদের উচ্ছ্বাস

news-details
বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক 

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয় দিয়েই শুরু হলো বাংলাদেশের এবারের ক্রিকেট বিশ্বকাপ। আইসিসি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের দুর্দান্ত সূচনা ক্রিকেটপ্রেমীদের রীতিমত ভাবিয়ে তুলেছে। প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১ রানে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। টাইগারদের এই জয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতেও ভেসে বেড়াচ্ছে জয়ের শুভেচ্ছা বার্তা। সেই তালিকায় আছেন তারকারাও।

জনপ্রিয় অভিনেতা, চিত্রনায়ক শাকিব খান তার ফেসবুক পেজ থেকে টাইগারদের শুভেচ্ছা জানিয়ে লিখেছেন, বিশ্বকাপে খুলে গেল বাংলাদেশের সাফল্যের “পাসওয়ার্ড”! ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৯ এর প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের দুর্দান্ত বিজয়ে বাংলাদেশ টিমকে অভিনন্দন।

চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস লিখেছেন, অভিনন্দন। প্রথম #সিডব্লিউসি১৯ জয়ের মধ্য দিয়ে গর্জে উঠেছে টাইগাররা। সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩৩০/৬ এর রেকর্ড-ব্রেকিং স্কোর যা ইতিহাস বদলে দিয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একটি পরিপূর্ণ পারফরম্যান্স ছিল।

অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা লিখেছেন, কনগ্র্যাচুলেশন টাইগার্স।

অভিনেত্রী জাকিয়া বারি মম লিখেছেন, ইয়েস…কনগ্র্যাচুলেশন অ্যান্ড উইন অ্যান্ড উই লাভ টাইগার্স।

জনপ্রিয় অভিনেতা, চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ লিখেছেন, এটা লন্ডন না, এটা মিরপুর। কনগ্র্যাচুলেশন টিম বাংলাদেশ।

অভিনেত্রী মারিয়া নুর লিখেছেন, আমাদের জন্য তো বিশ্বকাপ সবে শুরু। অভিনন্দন বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম। যখন মানুষ জিজ্ঞেস করে বাংলাদেশ টিম এর এক্স-ফ্যাক্টর কী, আমি বলি ‘টিম এফোর্ট’।

চিরকুট ব্যান্ডের সুমি লিখেছেন, ঈদ এসে গেছে!!! প্রাণ নিংড়ানো অভিনন্দন টাইগার্স! দারুণ শুরু। আশা করি শেষটাও দারুণ হবে এভাবেই!

নির্মাতা রেদওয়ান রনি লিখেছেন, সাবাস বাংলাদেশ! এ পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয় !!!

অভিনেতা এবিএম সুমন লিখেছেন, এই খেলার সবচেয়ে সুন্দর দিকটি হলো এটিকে কেউ অঘটন বলছে না! ক্রিকেট বিশ্ব বিশ্বাস করে যে আমরা যে কোনো খেলায় যে কোনো দলের বিপরীতে জিততে পারি। আমরা এখন শীর্ষে থাকা দলগুলোর একটি হিসেবে গণ্য হই। অভিনন্দন টাইগার্স। ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৯ এর দারুণ শুরু!

নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী লিখেছেন, প্রথম খেলাতেই বুঝিয়ে দিলো, আমরা বাঙালি, বাংলাদেশ আমাদের দেশ। অভিনন্দন, ফুল টিমকে অগ্রিম ভালোবাসা। স্যালুট।

নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন লিখেছেন, আজকের জয়টা আমার চোখ ভিজিয়ে দিয়েছে। আজকে জয়ের পর বাংলাদেশ বিশ্ববাসীর কাছে সম্ভ্রম আদায় করে নিয়েছে। কোনো রকমের অঘটন বা নাটকীয়তা বা সাডেন জয় নয় একেবারে যোগ্যদের মতো খেলে যোগ্যদের মতো জয়। পুরো টিমের দুর্দান্ত আত্মবিশ্বাসী অ্যাটিটিউড প্রমাণ করেছে এই জয় তারা অর্জন করেছে অনেকদিন ধরে। অভিজ্ঞতা বাংলাদেশ দলকে পরিণত করেছে পূর্ণাঙ্গ ম্যাচিউরড একটা দলে এবং সারা বিশ্বের মানুষ প্রত্যেকটি মুহূর্তে উপলব্ধি করেছে সেই ম্যাচিউরিটি। কমেন্টেটর যখন বলছিল মাশরাফি ওয়ার অব দ্য সলিড ক্যাপ্টেন অব দ্য ওয়ার্ল্ড তখন মনে হচ্ছিল, এটা আপনারা আজ জানলেন, আমরা অনেক আগে থেকেই খুব জানি।

পুরো টিমের মধ্যে বডি ল্যাঙ্গুয়েজে আমি কখনো বাড়তি উচ্ছ্বাস চমক দেখিনি যেন দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলকে হারিয়ে ফেলা খুব বড় কোনো ঘটনা নয়। বিশ্ববাসীর কাছে এটা আশ্চর্য মনে হতে পারে কিন্তু আমরা আমরা তো জানতাম এই বাংলাদেশ খুব ধীরে ধীরে তৈরি হয়েছে অনেকটা বছর ধরে, পুরো বাঙালির আবেগ আর ভালোবাসায় ভর করে। আপনারা কেবল আজ তা টের পেলেন। 


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।