বগুড়া উপ-নির্বাচনী প্রচারণায় ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ

news-details
দেশজুড়ে

বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়া-৬ সদর আসনের উপ-নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। হামলার সময় ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদেরও লাঞ্চিত করা হয়। পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের উপর হামলা ও লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদ জানিয়েছে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়া শহরের সাতমাথায় হামলার ঘটনায় আহত বিএনপি ও ছাত্রদলের ৫ নেতাকর্মীকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। 

জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বগুড়া শহরের প্রাণকেন্দ্র সাত মাথায় ধানের শীষের লিফলেট বিলি করতে আসেন বিএনপির সাবেক এমপি হেলালুজ্জামান তালুকদারলালু, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আজগর তালুকদার হেনা, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান, সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যানসহ কয়েকশ শত নেতাকর্মী। 

সাতমাথা এলাকায় বিলি করার সময় ছাত্রলীগের ২০-২৫ জনের একটি দল বিএনপির প্রচারণায় আখ নিয়ে হামলা করে। তারা এলোপাথারি পিটিয়ে রক্তাক্ত করে। এরমধ্যে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসানকে ধাওয়া করে পিটেয়ে রক্তাক্ত করে। ছাত্রদল সভাপতি আবু হাসান প্রাণভয়ে সাতমাথায় ট্রাফিক পুলিশ বক্সে ঢুকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করলেও হামলাকারীরা সেখানে ঢুকে বেদম প্রহার করে। তাদের লাঠিপেটায় গুরুতর আহত হন সাবেক এমপি লালু, ছাত্রদল সভাপতি আবু হাসান, সাধারণ সম্পাদক রিগ্যানসহ বেশ কয়েকজন। হামলায় হাসানের পুরো শরীর রক্তাক্ত হয় এবং সে সেখানেই লুটিয়ে পড়ে। পরে অন্যান্যরা এগিয়ে এসে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করে। 

এই হামলার দৃশ্য ক্যামেরায় ধারণ করতে গেলে হামলাকারীরা সাংবাদিক ও ফটোসাংবাদিকদের ওপরও হামলা করে। তাদের হামলায় আহত ও লাঞ্ছিত হয় কয়েকজন সাংবাদিক। সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ এবং বিচার দাবি করা হয়েছে। সাধারণভাবে পেশাদার সাংবাদিকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।