বিমানবন্দর সড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, বাসে আগুন

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

ন্যূনতম মজুরি বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবিতে ঢাকার প্রবেশমুখ বিমানবন্দর সড়কে দ্বিতীয়দিনের মতো বিক্ষোভ করছে পোশাক শ্রমিকরা। এ সময় একটি বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।  বিক্ষোভের মুখে ওই পথে যান চলাচল বন্ধ হয়ে রয়েছে।  

এর আগে সোমবার সকাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিতে শুরু করেন শ্রমিকরা। পরে দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দরের সামনের চত্বরসংলগ্ন রাস্তায় এনা পরিবহনের বাসটি ভাঙচুরের পর তাতে আগুন দেন শ্রমকিরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান জানান, সকাল ৯টার পর থেকে শ্রমিকরা রাস্তায় জড়ো হতে থাকে। রোববার তারা যে দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিল একই দাবি নিয়ে আজও তারা স্লোগান দিচ্ছে। বেলা সোয়া ১২টা থেকে আজমপুর, জসমিউদ্দিন ক্রসিং এবং বিমানন্দর সড়কে যান চলাচল একেবারেই বন্ধ রয়েছে।

ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানান হয়েছে, শ্রমিকরা রাস্তায় অবস্থান নেওয়ায় সকাল ১১টার পর উত্তরার আজমপুরে প্রথমে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এর পর বেলা সোয়া ১২টা থেকে বিমানবন্দরের সামনেও যান চলাচল বন্ধ হয়।

গতকাল রোববার উত্তরার বিভিন্ন গার্মেন্টসের শত শত শ্রমিক উত্তরার আজমপুর থেকে জসিমউদ্দিন ক্রসিং পর্যন্ত অবস্থান নিলে অচল হয়ে পড়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক। পরে পাঁচ ঘণ্টা পর দুপুর ২টার দিকে তারা রাস্তা থেকে উঠে যাওয়ার আগে সোমবার ফের বিক্ষোভের ঘোষণা দিয়েছিলেন। সেই ঘোষণা অনুযায়ীই সোমবার সকালে রাস্তায় নামেন শ্রমিকরা।

এর আগে গত শনিবার থেকে বকেয়া বেতন ও মজুরি বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন করে আসছে শ্রমিকরা। তাদের অভিযোগ, নতুন মজুরি কাঠামো অনুযায়ী ৫১ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি শুধু ৭ম গ্রেডের ক্ষেত্রেই দিচ্ছে মালিকরা। সমান বেতন দেওয়া হচ্ছে না, মূল্যায়ন করা হচ্ছে না অভিজ্ঞতা ও দক্ষতাকে।


 

You can share this post on
Facebook

0 Comments

If you want to comment please Login. If you are not registered then please Register First