ভ্রমণে গিয়ে কলেজছাত্রের মৃত্যু

news-details
দেশজুড়ে

 কুমিল্লা প্রতিনিধি  

 চাঁদপুরের পদ্মা নদীর চরে ‘মিনি কক্সবাজার’ হিসেবে পরিচিত স্থানে ভ্রমণে গিয়ে নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চাঁদপুরের মেঘনার ডাউন থেকে নৌপুলিশ রাফিদুল ইসলাম রাফিদের মরদেহ উদ্ধার করে।

রাফিদ কুমিল্লা বন বিভাগের কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। গোসল করতে নদীতে নেমে নিখোঁজ হন তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কলেজের অধ্যক্ষ ড. এমদাদুল হক জানান, বুধবার রাফিদুল নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে চাঁদপুরের নৌপুলিশ দিনভর তাকে উদ্ধারে অভিযান চালায়। কিন্তু অন্ধকারের কারণে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উদ্ধার অভিযান স্থগিত করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে নৌপুলিশসহ অন্যান্যরা উদ্ধার অভিযান শুরু করে। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চাঁদপুরের মেঘনার ডাউন থেকে নৌপুলিশ রাফিদুলের মরদেহ উদ্ধার করে।

রাফিদুল ইসলাম রাফিদের সহপাঠী রাজিব, সাখাওয়াত, সুদিপ্ত, মিঠু, হাবিব, ও জিসান জানান, বুধবার সকাল ৮টার দিকে তারা ‘মিনি কক্সবাজার’ ভ্রমণে যায়। চাঁদপুরের বড়স্টেশন এলাকায় যাওয়ার পর তারা একটি ট্রলারে করে দুপুর ১২টার দিকে পদ্মা নদীর মাঝখানে জেগে উঠা চরে ঘুরতে যায়। সেখানে তারা সাঁতার কাটছিল। একপর্যায়ে উত্তাল ঢেউ আর প্রবল স্রোতে নিখোঁজ হয়ে যান রাফিদ। এসময় সাত বন্ধু তীরে চলে আসতে সক্ষম হয়।

চাঁদপুর নৌপুলিশের এসআই হালিম বলেন, আইনগত প্রক্রিয়া শেষে রাফিদের মরদেহ তার স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হবে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।