ইতিহাস গড়ে জিততে হবে টাইগারদের

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক 

মাশরাফী-রুবেলদের নির্বিষ বোলিংয়ে রানের পাহাড় গড়েছে অস্ট্রেলিয়া। ট্রেন্ট ব্রিজে টস জিতে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ৩৮১ রান করে। বাংলাদেশকে জিততে হলে এই বিশাল রানের পাহাড় টপকাতে হবে।

এর আগে কখনো কোনো দল বিশ্বকাপে ৩৩০ রানের বেশি করে তাড়া করে জিততে পারেনি। ২০১৫ সালে আয়ারল্যান্ড ৩২৯ রান তাড়া করে জিতেছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। এটাই এখন পর্যন্ত বিশ্বরেকর্ড। তামিম-সাকিবকের জিততে হলে গড়তে হবে নতুন ইতিহাস। 

সেরা বোলার সৌম্য!

মাশরাফী-রুবেলরা যা পারেননি তাই করেছেন সৌম্য সরকার। বল হাতে নিয়েছেন তিনটি উইকেট। সাত ওভার বল করে ৪৯ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়েছেন তিনি।

ম্যাক্সওয়েল ঝড়

ওয়ার্নার আউট হয়ে গেলে ক্রিজে আসেন ম্যাক্সওয়েল। মাত্র ১০ বলে ৩২ রান করে রুবেলের হাতে রানআউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

বড় সংগ্রহের পথে অস্ট্রেলিয়া

মাশরাফী-মোস্তাফিজদের নির্বিষ বোলিংয়ে বড় সংগ্রহের পথে রয়েছে অস্ট্রেললিয়া। দুই ব্যাটসম্যন ওয়ার্নার ও খাজা প্রতি ওভারেই ১০-১২ রানের বেশি করে নিচ্ছেন।

ওয়ার্নারের ১৬৬

১০ রানে সাব্বিরের হাতে জীবন পাওয়া ওয়ার্নার ১০০ করে ফেললেন। এই বিশ্বকাপে এটি তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। ১৪৭ বলে ১৪টি চার ও পাঁচটি ছয়ের মারে তিনি এই রান করেন।

সৌম্যর বাজিমাৎ

মাশরাফী-মোস্তাফিজ থেকে শুরু করে রুবেল-সাকিব-মিরাজ কেউই যখন অজিদের উইকেট নিতে পারছেন না তখন মাশরাফী বোলিংয়ে নিয়ে আসলেন সৌম্যকে। আর তাতেই বাজিমাৎ। অ্যারন ফিঞ্চকে ফিরিয়ে সৌম্য স্বস্তি এনে দিলেন দলকে। ফিঞ্চ ৫৩ রান করে সৌম্যর বলে রুবেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

ওয়ার্নারের ক্যাচ হাতছাড়া

শুরু দিকে কয়েকটি ওভার দুর্দান্ত ফিল্ডিং করেছে বাংলাদেশ। কিন্তু হঠাৎ বদলে যায় টাইগার ফিল্ডারদের হাত। ওয়ার্নারের মতো ব্যাটসম্যানের ক্যাচ লুফে নিতে পারলেন না সাব্বির রহমান!

মাঠে থাকলে ওয়ার্নার যে কতটা ভয়ংকর তা কারো অজানা নয়। বছর খানেক নির্বাসনে থাকলেও তার ব্যাটে ধার কমেনি একটুও। এই বিশ্বকাপে খেলা পাঁচ ইনিংসে দুইটি হাফ সেঞ্চুরি ও একটি সেঞ্চুরি করেন।

ব্যক্তিগত ১০ রানের মাথায় এই বাঁহাতি ওপেনার মাশরাফীর বলে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে ক্যাচ দিলেও ধরতে পারেননি এই বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো সুযোগ পাওয়া সাব্বির। উলটো দুই রান নিয়েছেন ওয়ার্নার এই বল থেকে। ক্যাচ মিসের পর অবাক হয়ে সাব্বিরের দিকে তাকিয়ে থাকেন মাশরাফী।

দুই পরিবর্তন নিয়ে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

এই ম্যাচে একাদশে দুটি পরিবর্তন নিয়ে নামছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় ম্যাচটি শুরু হয়।

সাইফ উদ্দিন খেলতে পারবেন না গতকাল থেকেই মোটামুটি নিশ্চিত ছিল। ব্যাক পেইনের কারণে ছিটকে গেছেন এই অলরাউন্ডার। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ম্যাচে পাওয়া কাঁধে আঘাত ছিটকে দিয়েছে মোসাদ্দেককেও। এ দুজনের পরিবর্তে চলতি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো সুযোগ পাচ্ছেন রুবেল হোসেন ও সাব্বির রহমান।  

বিশ্বকাপে এর আগে দুবার (১৯৯৯ ও ২০০৭) বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি হয়েছে। গত বিশ্বকাপের ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়। আগের দুই সাক্ষাতেই পরাজয়ের তেতো স্বাদ পেলেও এবার নতুন গল্প লিখতে চান মাশরাফীরা।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।