শিক্ষাহীন জীবন চন্দ্রহীন আকাশের মতো : গণপূর্ত মন্ত্রী

news-details
জাতীয়

পিরোজপুর প্রতিনিধি

শিক্ষাহীন জীবন হচ্ছে চন্দ্রহীন আকাশের মতো। আপনারা শিক্ষার্থীদের সঠিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার চেষ্টা করেন। আমার শিক্ষকদের সামনে পেলে এখনো পায়ে হাত দিয়ে সালাম করার চেষ্টা করি। শিক্ষকরাই পারেন শিক্ষার্থীদের আলোর পথ দেখাতে। শিক্ষার্থীরা আপনাদের সন্তানের মতো। এই সন্তানদের শেখাবেন যে, অবৈধ উপায়ে অর্জিত টাকা দিয়ে বিত্ত বৈভব হলে তার মধ্যে কোনো কৃতিত্ব থাকে না। কষ্টার্জিত উপার্জনের টাকায় যাপিত জীবনে গর্ব থাকে, গৌরব থাকে।

আজ শুক্রবার বেলা ১১টায় পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদের শহিদ ওমর ফারুক অডিটরিয়ামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য প্রোজেক্টর ও সাউন্ড সিস্টেম বিতরণ অনুষ্ঠানে শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

মন্ত্রী আরো বলেন, আমরা বাংলাদেশকে শিক্ষিত মানুষের বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। কোনো শিক্ষাই কু-শিক্ষা না। যে শিক্ষায় শিক্ষিত পরিবারের সদস্যরা রেইনট্রি হোটেলে বান্ধবীকে নিয়ে ধর্ষণ  করে, যে শিক্ষায় শিক্ষিত ছেলেরা নুসরাতকে পুড়িয়ে মারে, যে শিক্ষায় শিক্ষিত ছেলেরা নয়ন বন্ডের পরিণতির শিকার হয়; সেই শিক্ষায় আমরা শিক্ষিত হতে চাই না। আমরা যেতে চাই সতিনাথ বসাকের আদর্শলিপি বাল্যশিক্ষার কছে। সেখানে যেতে চাই যেখানে লেখা থাকতো 'সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি, সারাদিন আমি যেন ভালো হয়ে চলি'। যেখানে লেখা থাকতো 'সদা সত্য বলিবে, মিথ্যা বলিবে না'। আমরা সেই জায়গায় ফিরে আসতে চাই। সন্তানদের শেখাবেন তারা যেনো মাদকাসক্ত না হয়। সন্তানদের শেখাবেন তারা যেন ইভটিজার নামে পরিচিতি না পায়। কোমলমতি ছাত্রদের মানসিকতা, তার করণীয় ও সুকুমার বৃত্তির কথা মাথায় রেখে শিক্ষা প্রদান করতে হবে। 
 
তিনি আরো বলেন, মানুষের কল্যাণে যারা নিজেকে উৎসর্গ করতে পারেন তারাই সত্যিকারের রাজনীতিবিদ। আমি আপনাদের ভলোবাসায় সংসদ সদস্য হয়েছি। প্রধানমন্ত্রী আমাকে মন্ত্রী বানিয়েছেন। আমার আর কী চাওয়ার থাকতে পারে। এখন আমার কাজ হচ্ছে মানুষের কল্যাণে কিছু করা। সেই আঙ্গিকে আপনাদের প্রতি আমার সনির্বন্ধ অনুরোধ, শিক্ষক ও বন্ধু-বান্ধব যারা রয়েছেন আসুন আমরা বাংলাদেশকে একটি আধুনিক ও সুশিক্ষিত রাষ্ট্রে পরিণত করি। 

জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে এসময় পিরোজপুর সংরক্ষিত মহিলা আসন-১৯ এর সংসদ সদস্য শেখ এ্যানি রহমান উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খালেক, স্বরূপকাঠি উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. জেছের আলী। অনুষ্ঠানে দুই উপজেলার শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা শেষে মন্ত্রী পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে কৃষি বিভাগের আয়োজনে উপজেলার দশজন ক্ষুদ্র চাষীর মধ্যে পাওয়ার প্রেশার যন্ত্র ও একজনকে কৃষি যন্ত্র রিপার বিতরণ করেন। এসময় সংসদ সদস্য শেখ এ্যানি রহমান, জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুন ইসলাম খান, উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খালেক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ মাহমুদ ও কৃষি কর্মকর্তা শিপন চন্দ্র ঘোষ উপস্থিত ছিলেন। 


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।