ব্রেকিং নিউজ

কেন গ্রেপ্তার হলেন চিদাম্বরম

news-details
আন্তর্জাতিক

আমাদের ডেস্ক

আইএনএক্স মিডিয়াসম্পর্কিত দুর্নীতি মামলার অভিযোগে প্রবীণ কংগ্রেস নেতা ও প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একই মামলায় এর আগে তার ছেলে কার্তি চিদাম্বরমকে ২৩ দিনের জন্য কারাবাস করতে হয়। এই কেলেঙ্কারিতে বেশকিছু হাই প্রোফাইল লোকজন জড়িত আছে বলে মনে করা হচ্ছে। মিডিয়া ব্যবসায়ী পিটার মুখোপাধ্যায় ও তার স্ত্রী ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের মতো কারাবন্দী অভিজাতদের নাম উঠে আসছে। দুজনই হত্যা মামলায় জেলে আছেন।

এদিকে, আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার এড়াতে ড্রাইভার ও সহকারীকে নামিয়ে নিজেই গাড়ি চালিয়ে বেপাত্তা হয়ে যান দেশের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্র ও অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরাম। এরপর কংগ্রেস সদরদপ্তরে দেখা দিয়েছিল তাকে। সিবিআই হানা দিলে সেখান থেকেও পালান তিনি। কংগ্রেস দপ্তর থেকে তাদের কোনো নেতা সিবিআইয়ের ভয়ে এইভাবে পালিয়েছেন, তা অনেক প্রবীণ কংগ্রেস নেতা স্মরণ করতে পারেন না।

যে কারণে পি চিদাম্বরমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা হলো– আইএনএক্স মিডিয়া মামলা। এই মামলায় মূল অভিযুক্ত চিদাম্বরাম ও তার ছেলে কার্তি।

কী এই আইএনএক্স মামলা?

পিটার ও ইন্দ্রানী মুখার্জির মালিকানাধীন আইএনএক্স মিডিয়া ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন বোর্ডের (এফ আইপিবি) মাধ্যমে মরিশাসের দুই নাগরিকের কাছ থেকে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগের (এফডিআই) সুযোগ পায়। ৪ কোটি ৬২ লাখ টাকা সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু আইএনএক্সের অন্য একটি সংস্থা আইএনএক্স নিউজ প্রাইভেট লিমিটেডকে এফডিআই-এর মাধ্যমে বিদেশি বিনিয়োগ টানার অনুমতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে, অনুমতির তোয়াক্কা না করে আইএনএক্স বিদেশি সংস্থার থেকে বিনিয়োগ গ্রহণ করে এবং তাদের নিজের শেয়ারও বিক্রি করে। পরে মামলা করে সিবিআই ও এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি।

চিদম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ কী?

২০০৭ সালে চিদাম্বরাম অর্থমন্ত্রী ছিলেন। অভিযোগ আছে সেই সময় এফইপিবি-এর মাথায় বসে তিনি আইএনএক্স-কে বেআইনি কাজকর্ম করতে দিয়েছিলেন। আইএনএক্স এর মালিক ইন্দ্রানী মুখার্জি সিবিআই জেরার মুখে স্বীকার করেছিলেন, ২০০৮ সালে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে তিনি আইএনএক্স মিডিয়ার জন্য সেরা ‘ডিল’ করতে পেরেছিলেন। সিবিআই অভিযোগ জানিয়েছে, আইএনএক্সের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে বিকল্পে চিদাম্বরম তাদের এফডিআই-এর জন্য পুনরায় আবেদন করতে বলেন।

চিদাম্বরমের ছেলে কার্তি কেন অভিযুক্ত?

চিদম্বরামপুত্র কার্তি পুরো বিষয়টি নিয়ে আইএনএক্স-কে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। তিনি অর্থমন্ত্রণালয় এবং আইএনএক্স-এর মধ্যে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করতে থাকেন। কার্তির কোম্পানি চেস ম্যানেজমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেডের দ্বারস্থ হন ইন্দ্রানী মুখার্জি। তদন্তে সিবিআই জানতে পারে, ইন্দ্রানী কার্তিকে ১০ লাখ ডলার দেবে বলে চুক্তি করেছে। একটি কোম্পানির নামে কয়েক লাখ টাকার চেক পাওয়া যায়। ওই কোম্পানি মালিক কার্তি না হলেও তিনি ওই কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত। সিবিআই আরও অভিযোগ করে, পুরো লেনদেনে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী চিদাম্বরম কেও ‘পার্টি’ করা হয়।

কেন গ্রেপ্তার হলেন চিদাম্বরম?

দিল্লি হাইকোর্ট সম্প্রতি চিদাম্বরমকে অন্তর্বর্তী জামিন দিতে অস্বীকার করে। আদালত বলেন, চিদাম্বরমই এই মামলার মূল অভিযুক্ত। তারপর সব আশা জলে যায় ইউপিএ’র এই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির।

ইএনএক্স মিডিয়া মামলায় গতকাল বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ দিল্লিতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে তার বাড়ি থেকে নাটকীয়ভাবে গ্রেপ্তার করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই। সিবিআইয়ের সদরদপ্তরেই রাত কাটিয়েছেন সাবেক অর্থমন্ত্রী। তাকে সিবিআই ভবনের ‘লকআপ স্যুট থ্রি’-তে রাখা হয়। ২০১১ সালে এই লকআপটি তার উপস্থিতিতেই উদ্বোধন করা হয়েছিল।

জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার প্রথমে পি চিদাম্বরমকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে সিবিআই, তারপরে তাকে আদালতে নিয়ে যাবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি। সেখানে তার সর্বোচ্চ ১৪ দিনের হেফাজত চাইবে সিবিআই।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।