ব্রেকিং নিউজ

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার শুনানি পেছাল

news-details
আইন-আদালত

আমাদের প্রতিবেদক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ অন্যান্য আসামির বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন পিছিয়েছে।  আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন আজ বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) ধার্য ছিল। কিন্তু শুনানি পেছানোর জন্য আবেদন করেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা। পরে আদালত নতুন তারিখ ধার্য করেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী হান্নান ভূঁইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুনানিতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা বলেন, খালেদা জিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাঁকে আদালতে হাজির করা যায়নি। তাই অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছানো হোক। পরে উভয়পক্ষের শুনানি শেষে কেরানীগঞ্জ কারাগারের অস্থায়ী ঢাকার তিন নম্বর আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক রবিউল আলম পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

দুদকের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন দুদকের উপপরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ক্ষমতার অপব্যবহার ও দুর্নীতির মাধ্যমে চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ গ্লোবাল অ্যাগ্রো ট্রেড কোম্পানিকে (গ্যাটকো) পাইয়ে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে রাষ্ট্রের প্রায় এক হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে।

মামলার তদন্ত শেষে ২০০৮ সালের ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন দুদকের উপপরিচালক জহিরুল হুদা। তাদের মধ্যে ছয় আসামি মারা গেছেন।

২৪ আসামির মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, সাবেক মন্ত্রী ও জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী, খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রাহমান কোকো, সাবেক মন্ত্রী এম কে আনোয়ার ও এম শামছুল ইসলাম, বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা আহমেদ আবুল কাশেমের মৃত্যুর পর এই মামলায় বর্তমান আসামির সংখ্যা ১৭ জন।

অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, সাবেক মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেনের (প্রয়াত) স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ এবং গ্লোবাল অ্যাগ্রোট্রেড প্রাইভেট লি. (গ্যাটকো)-এর পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন।

পরে দুদকের দেওয়া ওই চার্জশিটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে মামলা বাতিল চেয়ে রিট করেছিলেন খালেদা জিয়া। ওই রিটের কারণে প্রায় আট বছর নিম্ন আদালতে মামলার বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। এরপরে রিট খারিজ করে ২০১৬ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দুই মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালত। উচ্চ আদালতের নির্দেশে ওই বছরের ৫ এপ্রিল আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।