ব্রেকিং নিউজ

মেক্সিকোর বারে নাশকতার আগুনে নিহত ২৬

news-details
আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মেক্সিকোর দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর শহর কোয়াৎসাকোয়াকোসের একটি বারে সন্দেহভাজন অপরাধী দলের সদস্যদের আগুন নাশকতায় অন্তত ২৬ জন নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাতে নাশকতামূলক ওই আগুন লাগানো হয় বলে কর্তৃপক্ষের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এ ঘটনাকে ‘ভয়ঙ্কর’ বলে অভিহিত করেছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর।

সন্দেহভাজন অপরাধী দলের সদস্যরা বারটির জরুরি বহির্গমন পথ বন্ধ করে দিয়ে আগুন লাগানোর কারণেই এসব লোকের মৃত্যু হয়েছে বলে বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন তিনি।

ঝানু বামপন্থি নেতা লোপেজ ওব্রাদর গত ডিসেম্বরে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর দেশটিতে নির্বিচার হত্যাকান্ডের যতগুলো ঘটনা ঘটেছে তার মধ্যে সবচেয়ে শোচনীয় ঘটনার একটি এটি। দুর্নীতি ও অসাম্যের বিরুদ্ধে লড়াই করে মেক্সিকোতে শান্তি ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ওব্রাদর।

ঘটনাস্থল ভেরাক্রুজ রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেলের দপ্তর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘কাবাইও ব্ল্যাঙ্কো’ নামের ওই বারটিতে ১০ জন নারী ও ১৬ জন পুরুষ নিহত হয়েছেন এবং আহত আরও ১১ জন নিকটবর্তী হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

স্থানীয় অপরাধী দলগুলোর মধ্যে বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে এক টুইটার পোস্টে জানিয়েছেন ভেরাক্রুজের রাজ্য গভর্নর কুয়িতলাহুয়াক গার্থিয়া।

বুধবার চোখ বাঁধা, বন্দি এক ব্যক্তির শিরশ্ছেদের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। স্থানীয় গণমাধ্যম ওই ব্যক্তিকে বারটির মালিক বলে শনাক্ত করেছে।

ভিডিওটিতে তাকে ও দ্বিতীয় আরেক বন্দিকে ওই বারে অবৈধ মাদক সরবরাহের দায়ে অভিযুক্ত করতে দেখা যায় অজ্ঞাত দুই ব্যক্তিকে, এরপরই ছুরি দিয়ে তাদের মাথা কেটে ফেলেন ওই দুই ঘাতক।

এই ভিডিওটির কিছু অংশ মেক্সিকোর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, তবে রয়টার্স এর সত্যতা নির্ধারণ করতে পারেনি।

মেক্সিকোর কিছু গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে মলোটোভ ককটেল দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার আগে বন্দুকধারীরা বারটিতে গুলিবর্ষণ করেছিল বলে বলা হয়েছে।

এর আগে এপ্রিলে ভেরাক্রুজের মিনাতিতলান শহরের একটি বারে এ ধরনের আরেকটি হামলার ঘটনায় ১৩ জন নিহত হয়েছিল।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।