সুন্দরবনে মুক্তিপণের দাবিতে ৭ জেলে অপহৃত

news-details
দেশজুড়ে

।। বাগেরহাট প্রতিনিধি ।।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের আন্ধারিয়া বিল এলাকা থেকে এক লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবিতে ৭ জেলেকে অপহরণ করেছে ‘মাইজে ভাই’ বাহিনী নামে একটি বনদস্যু বাহিনীর সদস্যরা। 

শনিবার রাতে সুন্দরবনে মাছ আহরণের সময় অপহৃত এই ৭ জেলের মধ্যে ৩ জনের নাম-পরিচয় জানা গেছে। অপহৃত জেলেদের মধ্যে রয়েছেন, বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার জোরা ব্রিজ এলাকার জুম্মাত আলী সরদারের ছেলে জিয়ার সরদার, মোংলার গাববুনিয়া এলাকার মোতালেব সরদারের ছেলে রেজাউল সরদার ও খুলনার দাকোপ উপজেলার নজির আহম্মদের ছেলে মনির। বনদস্যুরা দুটি নম্বার থেকে মোবাইল করে অপহৃত জেলেদের পরিবারের সদস্যদের কাছে মুক্তিপনের ১ লাখ টাকা দাবী করা হয়েছে।

সুন্দরবন বিভাগ ও অপহৃত জেলে পরিবারের সদস্যরা জানায়, শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের আন্ধারিয়া বিলে মাছ আহরন করছিলো অপহৃত জেলেরা। এসময় একটি ট্রলার ও ডিঙ্গি নৌকায় করে বনদস্যু মাইজে ভাই বাহিনীর সদস্যরা সেখানে এসে অস্ত্রের মুখে ৭ জেলেকে অপহরণ করে সুন্দরবনের গহীন অরণ্যে নিয়ে যায়। 
শনিবার রাতে থেকে রবিবার দুপুর পর্যন্ত নিজেদের বনদস্যু মাইজে ভাই বাহিনীর কমান্ডার মনা, হাসান ও আশ্রাফুল নাম বলে মোবাইল করে অপহৃত জেলে পরিবারের সদস্যদের কাছে মুক্তিপণের টাকা দাবি করেছে। অপহৃত জেলে পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি সুন্দরবন বিভাগসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। 

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান জানান, শনিবার রাতে সুন্দরবনে মাছ আহরণের সময় আন্ধারিয়া বিল থেকে বনদস্যু মাইজে ভাই বাহিনীর সদস্যরা ৭ জেলেকে খবর পেয়েছি। মুক্তিপণের দাবিতে অপহৃত ৭ জেলেদের উদ্ধারে রবিবার সকাল থেকে বন বিভাগের স্মার্টপ্রেট্রোলিং টিমেসহ আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা অভিযান শুরু করেছে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।