ব্রেকিং নিউজ

মধুপুরে মোবাইল চুরির অভিযোগে তরুণকে পিটিয়ে হত্যা

news-details
দেশজুড়ে

মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার বেরীবাইদ ইউনিয়নের গুবুদিয়া গ্রামে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে এবার ওসমান (২৫) নামের এক তরুণকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকালে খবর পেয়ে মধুপুর থানা পুলিশ ওই তরুণের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। 

নিহত ওসমান রামকৃষ্ণবাড়ী গ্রামের ছমির উদ্দিনের ছেলে। গুবুদিয়া গ্রামের আয়েন উদ্দিনের বাড়িতে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে তাকে ধরে বাড়ির উঠানের আম গাছের সঙ্গে বেঁধে রাতভর পেটানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার রাতে আয়েন উদ্দিনের বাড়ির মোবাইর ফোন সেট চুরি করে ধরা পড়ে ওসমান। পরে ওই বাড়ির ও আশেপাশের লোকজন তাকে উঠানে আম গাছের সঙ্গে বেঁধে পেটাতে থাকে। রাতভর বাঁধা অবস্থায় থেমে থেমে পেটানো হয় তাকে। সকালে তার অবস্থা খারাপ দেখে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। লাশের গায়ে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জুলহাস উদ্দিন জানান, গণপিটুনিতে ওসমানের মৃত্যু হয়েছে।

মধুপুর থানার ওসি (তদন্ত) ছানোয়ার হোসেন জানান, ওসমানকে উদ্ধার করে মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার একই ইউনিয়নের বেরীবাইদ গ্রামে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে গ্রাম্য সালিশ বৈঠকে শরীফুল ইসলাম শরীফ (১৭) নামের এক কিশোরের পরিবারের বসতভিটা উচ্ছেদ করা হয় এবং তাদের গ্রাম ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়। এ ঘটনায় সমকালসহ একাধিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।