ব্রেকিং নিউজ

মির্জাগঞ্জে ইউএনও নম্বর ক্লোন করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাওয়া হয়েছে টাকা 

news-details
দেশজুড়ে

মোঃ সোহাগ হোসেন,মিজাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জের উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সরকারি মোবাইল নম্বর ক্লোন করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকের নিকট টাকা চাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে আজ শনিবার সন্ধায় মির্জাগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে।

শনিবার বিকালে ইউএনওর সরকারী মোবাইল নাম্বর (০১৭৩৩৩৩৪১৪৫) ক্লোন নম্বর থেকে উপজেলার সুবিদখালী র,ই পাইলট সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবদুল জলিলের কাছে দশ হাজার টাকা চাওয়া হয়।

আবদুল জলিল বলেন, বিকালে ৫ টার দিকে ইউএনওর মোবাইলফোন থেকে তার নম্বরে ফোন করে বলা হয় আপনার বিদ্যালয়ের জন্য দুটি ল্যাপটপ বরাদ্দ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে আপনার নিজের একটি। আমি এখন ঢাকায় আছি, আপনি দ্রুত দশ হাজার টাকা পাঠিয়ে দিন।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জের উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) মো. সরোয়ার হোসেন বলেন, আমার নম্বর ক্লোন করে ও  কন্ঠ নকল করে মুঠোফোনে টাকা চাওয়া হচ্ছে। শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের কাছে টাকা চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও ওই নম্বর থেকে আমাকে বারবার কল দিলে আমি রিসিভ করলে অপরদিক থেকে কোন সারা না দিয়ে লাইনটি কেটে দেয়। যদি আমার নাম করে কেউ কোন টাকা চায়,তাহলে কোন প্রকার লেনদেন না করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডাইরী (জিডি) করা হয়েছে। প্রতারণামূলক ফোন পেয়ে কেউ প্রতারিত হবেন না। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকাতে বলা হয়েছে। 

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।