ব্রেকিং নিউজ
  1. যারা কম আসন পেয়ে মন খারাপ করে সংসদে আসছেন না, তারা রাজনৈতিকভাবে ভুল করছেন : সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা; তাদেরকে সংসদে যোগ দেওয়ার আহ্বান
  2. রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলে নারী নির্যাতন মামলার আসামি সাফাত আহমেদের জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে প্রেরণ
  3. ৪ ঘণ্টার চেষ্টায় সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলের আগুন নিয়ন্ত্রণে, ১২শ রোগীকে অন্যত্র স্থানান্তর
  4. রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৪৪
  5. ইলিয়াসপত্নীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি
  6. কক্সবাজারের টেকনাফে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে ১০২ জন ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ, সাড়ে তিন লাখ পিস ইয়াবা ও ৩০টি আগ্নেয়াস্ত্র জমা
  7. বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ ঘোষণা; কোরবানি ছাড়া খরচ ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৮০০ টাকা; হজে যাবেন ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন : হাব
  8. মুক্তিযুদ্ধে ভূমিকার জন্য জামায়াত ক্ষমা চাইলেও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কাজ বন্ধ হবে না : ওবায়দুল কাদের

উত্তম কুমারের সঙ্গে প্রেম ছিল বললেন সাবিত্রী

news-details
বিনোদন

।। বিনোদন ডেস্ক ।।

কলকাতার বাংলা সিনেমার বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়। একটা সময় গুঞ্জন ছিল মহানায়ক উত্তম কুমারের সঙ্গে তার প্রেম আছে। এ প্রেম পরিণয়ে পরিণত হয়নি বলে অন্য কারও সঙ্গে ঘর বাঁধেনি সাবিত্রী। সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের প্রেম নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন ৮১ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী।

উপস্থাপক অনির্বাণ চৌধুরী প্রশ্ন করেন উত্তম-সাবিত্রীর কি প্রেম ছিল? উত্তরে সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘তা ছিল তো খানিকটা। তবে রটনাটা বেশি। আসলটা কম। যেটা বেরিয়েছিল, বালিগঞ্জে আমার সঙ্গে বিয়ে করে বাড়ি ভাড়া করে বসবাস করছেন উত্তম। তখন এ নিয়ে তুমুল ঝড় বয়ে গিয়েছিল। আসলে সেসব কিছুই হয়নি। আর তারপর থেকে আমার জীবনে আরও ট্র্যাজেডি নেমে এলো।

অভিনেত্রী সাবিত্রী চাইতেন না উত্তম কুমার সংসার ছেড়ে তার সঙ্গে ঘর করুক। বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি কখনও চাইনি সে তার সংসার ছেড়ে চলে আসুক।

বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি হয়েছে উল্লেখ করে সাবিত্রী বলেন, আমার কপালে যদি এখন বিবাহিত পুরুষই জোটে, তাহলে আমি কী করব? ভালোবাসব না? কিন্তু আমি কারও ঘর ভাঙবো না। যে কারণে আমার নিজের ঘর হয়নি।

উত্তম কুমারকে পাওয়া হলো না বলে বিয়েও করলেন না? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, উত্তম কুমারকে পাইনি বলে যে বিয়ে করিনি, তা নয়। বন্ধু অনেক ছিল, তবে ওই সবাই বিবাহিত, আর আমি কারও ঘর ভাঙতে চাইনি। কত ভালো সম্বন্ধ এসেছে, উত্তম কুমার যেয়ে ভাঙিয়ে দিয়ে এসেছে!

উত্তম কুমার কি আপনার প্রতি পজেসিভ ছিলেন, এমন প্রশ্নের জবাবে সাবিত্রী বলেন, পজেসিভ ছিলেন। তবে কেউ কেউ বলেন আমি মিথ্যা বলছি, এজন্য এতোদিন আমি এসব কথা বলিনি।

সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৩৭ সালে বাংলাদেশের কুমিল্লায়। ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর তিনি কলকাতায় চলে যান। থাকতেন টালিগঞ্জে বোনের বাড়িতে। এখান থেকেই শুরু করেন অভিনয়জীবন। প্রখ্যাত অভিনেতা ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে মঞ্চে নিয়ে আসেন। অভাব-অনটনের সঙ্গে সংগ্রাম করেই চলচ্চিত্র জগতে নিজের অবস্থান তৈরি করেন।

উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেনসহ অনেকেই তার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন। অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন পেয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান ‘পদ্মশ্রী’, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সর্বোচ্চ সম্মান ‘বঙ্গবিভূষণ’সহ নানা পদক ও সম্মাননা।

You can share this post on
Facebook

0 Comments

If you want to comment please Login. If you are not registered then please Register First