সোহেল রানার মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

বনানী এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডে আটকে পড়া মানুষকে উদ্ধারের সময় গুরুতর আহত ফায়ারম্যান সোহেল রানার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ।

সোমবার (৮ এপ্রিল) এক শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, ফায়ারম্যান সোহেল রানা মানবসেবায় আত্মত্যাগের যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তা সকলের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকেবে।

সোহেল রানার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান রাষ্ট্রপতি।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে যত দ্রুত সম্ভব সোহেল রানার মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে আনা হবে। সেক্ষেত্রে আজ দুপুর তিনটার একটি ফ্লাইটে তাকে আনার চেষ্টা করা হবে। সেটা সম্ভব না হলে রাত ১টার ফ্লাইটে আনা হবে বলে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বনানীর এফ আর টাওয়ারে আগুনের ঘটনায় আহত ফায়ারম্যান সোহেল রানা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত ৫ এপ্রিল, শুক্রবার সোহেল রানাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মার্চ বনানীর এফ আর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৬ জন নিহত ও ৭০ জন আহত হয়। অগ্নিকাণ্ডের পর কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান সোহেল রানা ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের উঁচু ল্যাডারে (মই) উঠে আগুন নেভানো ও আটকে পড়া ব্যক্তিদের উদ্ধার কাজ করছিলেন। এক পর্যায়ে সোহেলের শরীরে লাগানো নিরাপত্তা হুকটি মইয়ের সঙ্গে আটকে যায়। তিনি মই থেকে পিছলে পড়ে বিপজ্জনকভাবে ঝুলছিলেন। এ সময় তার একটি পা ল্যাডারের চাপে ভেঙে যায়। ল্যাডারের চাপে তার পেটের নাড়ি-ভুড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।