মোস্তাফিজের ফেরার ম্যাচে হারলো শাইনপুকুর

news-details
খেলাধুলা

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

মিরপুরে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) ২২ গজে নামলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে এই নামাটা অন্য রকেমের। দীর্ঘ ৪ বছর পর ডিপিএল খেলতে নামলেন তিনি। তার এই ফেরাটা আরোও সার্থক হতো যদি দলকে জেতাতে পারতেন।

বল হাতে ঠিকই জাদু দেখিয়েছেন মোস্তাফিজ।তবে তার দল শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব বৃষ্টি আইনে ২১ রানে হেরেছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের কাছে। শাইনপুরের ইনিংসে দুই দফায় বৃষ্টি হওয়ায় ৫০ ওভারে ম্যাচ ৪৮ ওভারে নামিয়ে আনা হয়।

শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ১৭৭ রান করে শাইনপুকুর। জবাবে ১৭৯ রানের নতুন টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট ১০৬ রান তোলার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। পরে বৃষ্টির কারণে ম্যাচ শুরু না হলে হিসাব করে দেখা যায় বৃষ্টি আইনে গাজী গ্রুপ ২১ রান বেশি করেছে। ফলে ২১ রানেই গাজী গ্রুপকে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

১৭৯ রানের নতুন টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৬ রানের মধ্যে ওয়ালিউল করিম ও ইমরুল কায়েসের উইকেট হারায় গাজী গ্রুপ। ইনিংসের প্রথম ওভারে দুটি উইকেটই তুলে নেন চার বছর পর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলতে নামা কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৪৬ রান যোগ করেন মেহেদী হাসান ও শামসুর রহমান। ১৩ রান করে আউট হন মেহেদী। মোস্তাফিজের তৃতীয় শিকারে পরিনত হন তিনি।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে আরও ৩২ রান যোগ করেন শামসুর ও রনি তালুকদার। রনি দলীয় ৮৪ রানে ব্যক্তিগত ১৬ রানে রান আউট হন। একপ্রান্ত আগলে রেখে অর্ধশতক তুলে নেন শামসুর। ২১ দশমিক ৫ ওভারে ৪ উইকেটে ১০৬ রান তোলার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

এরপর খেলার আর শুরু না হলে বৃষ্টি আইনে গাজী গ্রুপকে ২১ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয়। শামসুর রহমান ৫৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। শাইনপুকুরের মোস্তাফিজুর রহমান ৩টি উইকেট নেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে শাইনপুকুর। তবে ১ উইকেটে ৪১ রান তোলা পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। ৩৫ মিনিট পর খেলা আবার শুরু হয়। দলীয় ৫৮ রানে উন্মুখ চাঁদ ও দলীয় ৭৩ রানে তৌহিদ হৃদয় আউট হন। ৩ উইকেটে ৭৭ রান তোলার পর আবারো বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় ৩৩ মিনিটে খেলা বন্ধ থাকার পর আবারো শুরু। তবে ৫০ ওভারের ম্যাচ ৪৮ ওভারে নামিয়ে আনা হয়।

এরপর সাদমান ইলাম (৪০), অমিত হাসান (৭), আফিফ হোসেন (০) ও শুভাগত হোম (২) দ্রুত বিদায় নিলে ১০২ রানে ৭ উইকেট হারায় শাইনপুকুর। ফলে বড় রান সংগ্রহের আশা শেষ হয়ে যায় তাদের। তবে সোহরাওয়ার্দী শুভ ৩০ ও দেলোয়ার হোসেন অপরাজিত ৪০ রানের ইনিংস খেললে নির্ধারিত ৪৮ ওভারে ৯ উইকেটে ১৭৭ রান তোলে শাইনপুকুর। গাজী গ্রুপের সঞ্জিত শাহা ৪টি, নাসুম আহমেদ ২টি এবং আবু হায়দার ও কামরুল ইসলাম রাব্বি ১টি করে করে উইকেট নেন।

গাজী গ্রুপের সঞ্জিত সাহা ম্যাচ সেরা হন। এই জয়ে ১০ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার ষষ্ঠ স্থানে উঠে এসেছে গাজী গ্রুপ। ফলে সুপার লিগে খেলা আশা টিকে থাকলো গাজী গ্রুপের। অন্যদিকে অষ্টম স্থানে থাকা শাইনপুকুরের সুপার লিগে খেলাটা কঠিন হয়ে পড়েছে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।