ব্রেকিং নিউজ

কাউন্সিলর রাজীব ও মিজান রিমান্ডে

news-details
আইন-আদালত

আমাদের প্রতিবেদক : 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিল মো. তারেকুজ্জামান রাজীব ও ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজানের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আসামিদের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন।

অবৈধ সম্পদ অর্জনের পৃথক দুই মামলায় কাউন্সিলর রাজীবের ১০ দিনের এবং মিজানের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তারা। আসামিপক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। দুদকের পক্ষ থেকে রিমান্ড মঞ্জুরের আবেদন করা হয়।

সব পক্ষের শুনানি শেষে আদালত কাউন্সিল রাজীবের চার দিন ও মিজানের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

কাউন্সিল রাজীবের ২৬ কোটি ১৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ ও মিজানের ৩০ কোটি ১৬ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গত ৬ নভেম্বর পৃথক দুটি মামলা করা হয়। দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী এবং উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান এ দুটি মামলা করেন। তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারা ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন, ১৯৮৭ এর ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়।

গত ১৯ অক্টোবর রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে কাউন্সিল রাজীবকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ওই সময় তার কাছ থেকে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করা হয়। অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারের ঘটনায় র‌্যাব-১ এর ডিএডি মিজানুর রহমান বাদী হয়ে রাজধানীর ভাটারা থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন। এ দুই মামলায় ইতোমধ্যেই তার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করা হয়েছে।

কাউন্সিলর মিজানকে র‌্যাবের একটি বিশেষ টিম গত ১১ অক্টোবর মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থেকে গ্রেপ্তার করে। ওই সময় তার কাছ থেকে একটি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন এবং নগদ ২ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় শ্রীমঙ্গলে এবং অর্থ উদ্ধারের ঘটনায় রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় অর্থ পাচার আইনে মামলা করা হয়।
 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।