ব্রেকিং নিউজ

সৌম্যর ঝড়ো ফিফটিতে কুমিল্লার জয়

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

টুর্নামেন্ট থেকে আগেই ছিটকে গেছে সিলেট থান্ডার। ফলে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ৩৫তম ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে নিয়মরক্ষার জন্যই নেমেছে আন্দ্রে ফ্লেচারের নেতৃত্বে দলটি। কিন্তু এই ম্যাচেও জয়ের দেখা পায়নি সিলেট। কুমিল্লার বিপক্ষে ৫ উইকেটে হেরেছে সিলেট। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করেছে সিলেট।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ধীর শুরু করে সিলেট ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ও আব্দুল মজিদ। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে দলীয় ২৭ রানে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক আন্দ্রে ফ্লেচার। ২২ বল খেলে ২৫ রান করতে সমর্থ হন এই ব্যাটসম্যান।

জনসন চার্লস বোলারদের উপর চড়াও হলেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। ১৫ বলে ২৬ করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ফ্লেচারের পর চার্লসকেও সাজঘরে ফেরান আল আমিন হোসেন। এরপর আব্দুল মজিদ ও মোহাম্মদ মিঠুন দেখেশুনে খেলতে গেলে শ্লথ হয়ে যায় সিলেটের রানের গতি। ২৫ বলে ১৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন মিঠুন।

শেষ দিকে জীবন মেন্ডিসের ১১ বলে ২৩ ও আব্দুল মজিদের ৪০ বলে ৪৫ রানের উপর ভর করে সিলেট ১৪১ রানে পৌঁছায়। কুমিল্লার পক্ষে আল আমিন হোসেন ও ডেভিড ওয়াইজ ২টি করে উইকেট পেয়েছেন । বাকি একটি উইকেট পেয়েছেন মুজিবুর রহমান।

১৪২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সিলেটের দেয়া বড়সড় হোঁচট খায় কুমিল্লা। দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার ফারদিন আহমেদকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে কেড়ে নেন নাইম হাসান। এরপর ৩২ রান তুলতেই সাজঘরে ফিরে যান উপল থারাঙ্গা এবং অঙ্কন।

এরপর ডেভিড মালান এবং সৌম্য সরকারের দায়িত্বশীল ব্যাটে ভর করে কাঙ্খিত লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে থাকে কুমিল্লা। দলীয় ১০৪ রানে মালান অর্ধশতের ইনিংস খেলে ৫৮ রানে বিদায় নিলেও ঝড় অব্যাহত রাখেন সৌম্য। তুলে নেন ব্যক্তিগত অর্ধশতকও। সেই সাথে ইয়াসির আলিকে সাথে নিয়ে ছিনিয়ে আনেন ৫ উইকেটের জয়।

ইনিংস শেষে ৩০ বলে ৫৫ রানে অপরাজিত থাকেন এই ব্যাটসম্যান। সিলেটের হয়ে তিনটি উইকেট নেন নাইম হাসান।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।