ব্রেকিং নিউজ

ডিআইজি প্রিজন্স হিসেবে পদোন্নতি পেলেন জাহাঙ্গীর কবির

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক : 

ডিআইজি প্রিজন্স হিসাবে পদোন্নতি পেলেন সিনিয়র জেল সুপার জাহাঙ্গীর কবির। বুধবার ৮ জানুয়ারী সন্ধ্যায় কারা অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে পদোন্নতিপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর কবিরকে রেংক ব্যাজ পরিয়ে দেন আইজি প্রিজন্স ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তফা কামাল পাশা। এ সময় ঢাকা বিভাগের ডিআইজি প্রিজন্স ও ডিআইজি হেডকোয়ার্টার্সের দায়িত্বে থাকা টিপু সুলতান, এআইজি প্রিজন্স (এডমিন) ওবায়দুর রহমান সহ কারা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তার এই পদোন্নতি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ থেকে কার্যকর করা হয়েছে।

অত্যন্ত দক্ষ, বিনয়ী ও বন্কাদীবান্ধব কারা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর কবির ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে দুই বছরের অধিক সময় সিনিয়র জেল সুপার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তাঁর সময়েই ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার পুরাতন ঢাকা থেকে কেরানীগঞ্জে স্থানান্তর হয়। এ সময় তাঁর নেতৃত্বে মাত্র একদিনেই প্রায় আট হাজার বন্দি কেরানীগঞ্জ কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। যা কারা ইতিহাসে রেকর্ড বটে।

এছাড়াও যুদ্ধপরাধীদের ফাঁসি কার্যকর করার ক্ষেত্রেও কারাগারে তিনি অফিসার হিসেবে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সর্বশেষ এবং কেরানীগঞ্জের নতুন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সর্বপ্রথম সিনিয়র জেল সুপারের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

২০০৮ সালে মুন্সিগঞ্জ কারাগারে জেল সুপার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। এরপর কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১ ও ২ এর জেল সুপার থেকে পরে এআইজি হিসেবে কারা অধিদফতরে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগার,চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার হয়ে সিনিয়র জেল সুপার হিসেবে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে কর্মজীবন শুরু করেন।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ডিআইজি প্রিজন্সের অতিরিক্ত দায়িত্ব নিয়ে ২০১৯ সালে ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগারে যোগদান করেন। এসময় তিনি ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপারের পাশাপাশি ময়মনসিংহ বিভাগের ডিআইজি প্রিজন্সের অতিরিক্ত দায়িত্বে ছিলেন। কারা বিভাগের নতুনত্ব আনয়নে ও কারাগারের প্রকৃত সংশোধনাগার হিসেবে প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। বিভাগীয় বিভিন্ন প্রশিক্ষণর জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেছেন।

ডিআইজি প্রিজন্স হিসাবে পদোন্নতির ব্যাপারে জাহাঙ্গীর কবিরের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, এ পদোন্নতি তার চাকরি জীবনের বড় প্রাপ্তি। কর্মজীবনে অতীতের মতো ভবিষ্যতেও যেন তিনি যেন সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে পারেন সেজন্য নিজ দপ্তর ও সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা ও দোয়া চান। তিনি জানান, ডিআইজি প্রিজন্স হিসেবে পদোন্নতির পর নতুনভাবে এখনও তাঁর পোস্টিং হয়নি। তবে তিনি মনে করেন সরকার যেখানে পোস্টিং দেবেন সেখানেই তিনি নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন।

উল্লেখ্য, জাহাঙ্গীর কবিরের জন্ম ঝিনাইদহ জেলায়।পরিবারে পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে জাহাঙ্গীর তৃতীয়। তিনি ঝিনাইদহ জেলায় নিজ গ্রামের স্কুল থেকে কৃতিত্বের সাথে এসএসসি পাশ করেন, এরপর ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। ব্যক্তি জীবনে দুই ছেলের জনক তিনি।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।