ব্রেকিং নিউজ

ক্ষমতাসীনরাই সিটি নির্বাচনের দায়িত্বে: ফখরুল

news-details
রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

ক্ষমতাসীন দলের সমর্থিত কর্মকর্তাদের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের ১৬ দিন আগে তিনি এই অভিযোগ করেন।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১ টায় গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ‘হেল্প সেল’ এর উদ্যোগে বিগত আন্দোলনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীদের হাতে গুম, হত্যা, পঙ্গু হওয়া নেতা-কর্মীর পরিবারের সদস্যদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদানের অনুষ্ঠানে তিনি কথা বলেন। এসময় গুম হওয়া ১০ পরিবারের সদস্যদের হাতে শিক্ষা বৃত্তি হিসেবে আর্থিক অনুদান দেয়া হয়।

সংগঠনটির সভাপতি আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য এনামুল হক চৌধুরী, সাবেক ছাত্র নেতা নাজিম উদ্দিন আলম, কামরুজ্জামান রতন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, শফিউল বারী বাবু, মামুন হাসান, ছাত্র দলের ফজলুর রহমান খোকন, হেল্প সেলের নাসির উদ্দিন শাওন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আজকে যে সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হচ্ছে, এই নির্বাচনে যাদেরকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তাদের ব্যাক গ্রাউন্ড কিন্তু আমরা জানি। কে গাড়ির অনুমোদন নেয়ার জন্য ফাইল বদল নিয়ে মন্ত্রীর কাছে গেছেন, কারা নিজের স্কুল পারমিশন নেয়ার জন্য সরকারি জমি নিয়েছেন, এসব খবর আমাদের কাছে আছে।

এসব মানুষগুলোকে যাদের কোনো মোরালিটি নেই, তাদেরকে নির্বাচনে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং তাদেরকে দিয়েই আবার নতুন যন্ত্র তৈরি করেছে ইভিএম মেশিন। যে মেশিন পৃথিবীর সমস্ত্র দেশে রিজেক্টটেড হয়ে যাচ্ছে, সেই মেশিন কখনোই ভোটারের যে ইচ্ছা, সে সেখানে ভোট দিতে যায় তা প্রতিফলন না ঘটানোর মতো যথেষ্ট কৌশল এর মধ্যে রয়েছে। এটাকে ম্যানুপুলেটেড করা যায়। এ সময় চট্টগ্রামে উপ-নির্বাচনে ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে যেতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন তিনি।

সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, জনগণের ভোটারের অধিকার কেড়ে নিয়ে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রের পরিণত হতে চলেছে। তবুও এদেশের মানুষ বার বার উঠে দাঁড়িয়েছে, তরুনরা উঠে দাঁড়িয়েছে, দাঁড়াবে, দাঁড়াচ্ছে। সব জায়গায় প্রতিরোধ হচ্ছে, প্রতিরোধ হবে।

গুম হওয়া পরিবারের সদস্যদের ছোট ছোট সন্তানদের দিকে তাঁকিয়ে তিনি আবেগ প্রবণ কন্ঠে বলেন, এই যে শিশুরা ওরা প্রতিমুহুর্তে ভাবে যে, তার বাবা ফিরে আসবে, আসে না। মা আছেন ভাবেন যে, এই বোধহয় ছেলে দরজা নক করলো, আসে না। স্ত্রী অপেক্ষা করে থাকে কখন তার প্রিয় মানুষটা পাশে আসবে। এ সময় সরকারের প্রতিহিংসায় কারাবন্দি খালেদা জিয়ার গুরুতর অসুস্থ্য তার কথা বলে আক্ষেপ করেন তিনি।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।