ব্রেকিং নিউজ

সাংবাদিক মাহমুদ হোসাইনের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক

চ্যানেল নাইনের অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান ‘নাইন ইনভেস্টিগেশন’ এর প্রতিবেদক মাহমুদ হোসাইনের ওপর হামলার মামলার আসামিদের সাত দিনের মধ্যে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে ঢাকায় কর্মরত সাংবাদিকরা।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়। এক সপ্তাহের মধ্যে আসামিদের গ্রেফতার করা না হলে ডিএমপি কমিশনার, আইজিপি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কার্যালয় বরাবর পদযাত্রা, স্মারকলিপি, গণস্বাক্ষর কর্মসূচির মতো বৃহত্তর কর্মসূচি দেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।

মানববন্ধনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন বলেন, দেশে যে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা তা স্তিমিত করতে দুর্নীতিবাজ, ভুয়া গণমাধ্যমের একটি চক্র বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। এ সংক্রান্ত অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করার পর চ্যানেল নাইনের অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান ‘নাইন ইনভেস্টিগেশন’ এর প্রতিবেদক মাহমুদ হোসাইনের ওপর রাতের অন্ধকারে হামলা হয়েছে। দুঃখজনক হলেও সত্য যে, হামলার ঘটনায় রাতেই মামলা হলেও চিহ্নিত অপরাধীদের কাউকে গত সপ্তাহেও খিলগাঁও থানা পুলিশ গ্রেফতার করেনি।

ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের লজ্জা হয়, একজন পেশাদার ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকের ওপর হামলা ও মামলার পরও আসামিরা গ্রেফতার হয়নি, উল্টো হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। এটা কোনোভাবে মেনে নেয়া হবে না। এই হামলার পর মামলা তুলে নিতে পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ফোন করেন কোন সাহসে। আমরা স্পষ্ট করে বলছি, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। হামলায় জড়িতরা যতোই প্রভাবশালী হোক না কেন গ্রেফতার করুন, অন্যথায় বিকল্প ও কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সহ-সভাপতি আজমল হক হেলাল বলেন, একজন সংসদ সদস্য ও একজন পুলিশ কর্মকর্তার পরিচয়ে প্রভাব দেখিয়ে হামলা হয়েছে। আবার মামলা তুলে নিতে যে কর্মকর্তা কল করেছেন তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিতে আইজিপির প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। অতীতে অনেক হামলার ঘটনা ঘটেছে। সাংবাদিক নির্যাতনের বিচার আমরা পাইনি। আর এটা হতে দেয়া হবে না।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদ নিজাম বলেন, এর আগে আমরা হেলমেট বাহিনী কর্তৃক সাংবাদিকদের ওপর হামলা হতে দেখেছি। কিন্তু বিচার তো দূরে, সনাক্তকৃত কোনো আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করেনি। এই যে বিচারহীনতা, সাংবাদিক নির্যাতনের পর আসামিদের পার পাওয়া, তা পুলিশ প্রশাসন কোনোভাবেই দায় এড়াতে পারে না।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরী কমিটির সদস্য বাতেন বিপ্লব বলেন, সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সমাজের অন্যায়গুলো তুলে ধরায় অনেকবারই নির্যাতন চালানো হয়েছে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের ওপর। কিন্তু বিচার মেলেনি। আমরা এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী পরিষদ সদস্য গোলাম মুজতবা ধ্রুব বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সুশাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে গণমাধ্যমের ভূমিকাতেও প্রধানমন্ত্রী বারবার জোর দিয়েছেন। সাংবাদিক নির্যাতন সুশাসন প্রতিষ্ঠার অন্তরায়। সাংবাদিক মাহমুদকে যারা নির্যাতন করেছে তারা অপরাধী। তাদের পরিচয়ও সনাক্ত। আমরা আশা করছি পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার করবে।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন- চ্যানেল নাইনের সিনিয়র রিপোর্টার তাইমুর হাসান শুভ, মীর্জা রুমন, আগামী নিউজের মোস্তাফিজুর রহমান সুমন, আরটিভির মিঠুন চৌধুরী, সারা বাংলার প্রধান অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদক উজ্জল হোসেন জিসান, আমাদের সময় ডটকমের স্টাফ রিপোর্টার সুশান্ত সাহাসহ শতাধিক সাংবাদিক।

উল্লেখ্য, গত ১১ জানুয়ারি রাত পৌনে ১০টায় রামপুরার ই ব্লকের ৬ নম্বর রোডে চ্যানেল নাইনের অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান ‘নাইন ইনভেস্টিগেশন’ এর প্রতিবেদক মাহমুদ হোসাইনের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। ওই রাতে চ্যানেল নাইনে অনুসন্ধানী অনুষ্ঠান ‘নাইন ইনভেস্টিগেশন’ এর প্রথম পর্বটি প্রচারিত হয়। অনুসন্ধানী প্রতিবেদনটি প্রচার করায় দুর্বৃত্তরা হামলা করে বলে মনে করেন নির্যাতিত সাংবাদিক মাহমুদ।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।