ব্রেকিং নিউজ

থানা হেফাজতে বিএফডিসি কর্মকর্তার মৃত্যু 

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক : 

থানা হেফাজতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন(বিএফডিসি)’র এক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। স্বজনদের দাবী পুলিশের নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশের দাবী তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

নিহত ব্যাক্তির নাম আবু বকর সিদ্দিক বাবু(৪৫)। তিনি বিএফডিসি’র ফ্লোর ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। শনিবার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা পুলিশ। রোববার রাত ৪টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশ তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন।

নিহতের সাবেক স্ত্রী আলেয়া ফেরদৌসী রোববার দুপুরে ঢামেক মর্গে এসে লাশ সনাক্ত করেন। এসময় তিনি অভিযোগ করেন, শনিবার রাস্তা থেকে বাবুকে পুলিশ ধরে নিয়ে যায় বলে শুনেছি। তাকে পুলিশ নির্যাতন করে হত্যা করেছে।  

বাবুর সহকর্মী এফডিসি’র ক্যামেরা এসিসট্যান্ট সাইফ জানিয়েছেন, শনিবারও তারা একসাথে কাজ করেছেন। তার(বাবু) লাশ দেখে মনে হয়নি তিনি আতœহত্যা করেছেন। কারন তার গলা, হাত ও চোখে আঘাতের চিহ্ন আছে।

তবে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার উপ কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার অভিযোগ প্রত্যাখান করেছেন। তিনি বলেছেন, নিহতরে স্বজনরা অভিযোগ করতেই পারে। তবে তার গায়ে টাচও করা হয়নি। তিনি(বাবু) গলায় চাদর পেঁচিয়ে থানার গারদের শিকের সাথে ঝুলে আতœহত্যা করেন। তিনি আরো বলেন, থানার সিসি ক্যামেরা ফুটেজেও চাদর দিয়ে তার আতœহত্যা চেষ্টার বিষয়টি ধরা পড়েছে। 

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি,আলী হোসেন জানিয়েছেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন ও ছবি তুলে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকির অভিযোগ আনেন রোকসানা আক্তার নামে এক নারী। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা ওই মামলায় আবু বকর সিদ্দিক বাবুকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে কোন টর্চার করা হয়নি উল্লেখ করে ওসি বলেন, তিনি(বাবু) গলায় চাদর পেচিয়ে আতœহত্যা করেছেন।

অন্যদিকে বিএফডিসি’র প্রশাসনিক কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেছেন, শনিবার রাত ৭টা ৫৩ মিনিটে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা থেকে এসআই রফিকুল পরিচয় দিয়ে একজন বাবুর বিষয়ে জানতে চান। বাবু বিএফডিসিতে ফ্রিল্যান্সার নাকি স্থায়ী কর্মী হিসেবে কাজ করেন তা নিশ্চিত হতে ফোন করে পুলিশ। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় বিএফডিসি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঢামেক হাসপাতালে আছেন। মামলা হবে কিনা তা কর্মকর্তারাই সিদ্ধান্ত নিবেন। সর্বশেষ গত বুধবার তিনি বাবুকে বিএফডিসিতে দেখেছেন বলে জানান।
এদিকে নিহত বাবুর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বিবাহিত জীবনে বাবু দুই ছেলেন জনক। স্ত্রী আলেয়ার সাথে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পর দুই সন্তানকে নিয়ে তিনি মোহাম্মদপুরের চাঁদ উদ্যানে থাকতেন। সন্তানরা মায়ের কাছেও থাকতো। বাবুর গ্রামের বাড়ি,নোয়াখালী জেলার সেনবাগ উপজেরার বালিয়াকান্দি গ্রামে। তার বাবার নাম মৃত নুরুল ইসলাম।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।