ব্রেকিং নিউজ

সুনিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কারও বিরুদ্ধে অভিযানে যাব না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

news-details
জাতীয়

         চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, মাদকের তৎপরতা বন্ধে তিনভাগে কাজ শুরু হয়েছে। কাজ চলছে। মাদক একটি ভয়ংকর নেশা। যিনি একবার এ নেশায় আসক্ত হবেন তিনি আর বের হতে পারেন না। মাদক সর্বনাশা। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম যাতে মাদক ও জঙ্গিবাদে না জড়ায় সেটি নিয়ে কাজ করছি। মাদকের বিরুদ্ধে চলমান শুদ্ধি অভিযান চলবে। যতক্ষণ টার্গেটে যেতে না পারি ততক্ষণ অভিযান চলবে। সুনিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আমরা কারও বিরুদ্ধে অভিযানে যাব না। সুনিশ্চিত হয়েই অভিযুক্তদের ধরব।

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় র‌্যাব–৭–এর কার্যালয়ে আদালতের নির্দেশে জব্দের কোকেন ধ্বংসের পরই সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আসাদুজ্জামান খান বলেন, কোকেনের দেশ ও আন্তর্জাতিক চক্রকে শনাক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। যারা পলাতক, তাদের গ্রেপ্তারে ইন্টারপোলের সাহায্য নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সুন্দরবন একসময় জলদস্যু, বনদস্যুদের অভয়ারণ্য ছিল। কোনো পর্যটক, স্থানীয় জেলে সুন্দরবনে যেতে পারতেন না। কিন্তু র‌্যাবের প্রচেষ্টায় এখন সুন্দরবন জলদস্যুমুক্ত হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, দেশে ইয়াবা প্রবেশের প্রধান রুট কক্সবাজার। সেখানেও র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় তা কমে এসেছে।

২০১৫ সালের ৬ জুন চট্টগ্রাম বন্দরে সূর্যমুখী তেলের নামে আনা একটি চালানে ১০৭টি ড্রাম জব্দ করা হয়। পরে দুটি ড্রামে ৩৭০ লিটার কোকেন শনাক্ত হয়। এ ঘটনায় মাদক ও চারাচালান আইনে দুটি মামলা করা হয়। আদালতের নির্দেশে জব্দ করা কোকেন ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ধ্বংস করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।


র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মশিউর রহমান জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, মো. হাবিবুর রহমান এমপি, মো. ফরিদুল হক খান এমপি, পীর ফজলুর রহমান এমপি, চট্টগ্রাম-১১ আসনের এমপি এম আবদুল লতিফ, র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. বেনজীর আহমেদ, চট্টগ্রাম রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান।

এ সময় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক মো. মজিবুর রহমান পাটোয়ারী, বিভিন্ন সরকারি ও সামরিক কর্মকর্তাসহ র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কমর্কর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।