ব্রেকিং নিউজ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের

news-details
রাজনীতি

আমাদের প্রতিবেদক : 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দল মত নির্বিশেষে সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘মুজিব বর্ষের ক্ষণগননা অনুষ্ঠানে বিএনপিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল, কিন্তু আসেনি, কেন আসেনি সেটা তাদের ব্যাপার। মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানেও তাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে, তবে কোনোভাবেই স্বাধীনতা বিরোধীদের আমন্ত্রণ জানানো হবে না।’

আজ বৃহষ্পতিবার বিকেলে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন। 

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ ও মহানগরের অন্তর্গত দলের সংসদ সদস্য এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের ইতিহাসের মহাবীর। তিনি কোন দলের নয়, বঙ্গবন্ধু মহাবীর, মহানায়ক, তাঁকে দলীয়করণ করতে চাই না। আমরা দলমত নির্বিশেষে যারা মুক্তিযুদ্ধ আর স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে তাদের সবার জন্য এই অনুষ্ঠান আয়োজন উম্মুক্ত।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বছরব্যাপী বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠানের মূল থিম হবে- বাংলাদেশ ব্রান্ডকে বিশ্বব্যাপী তুলে ধরা, অভ্যুদয়, ইতিহাস-ঐতিহ্য এবং শেখ হাসিনার উন্নয়ন। বাংলাদেশ নামক ব্রান্ডকে বিশ্ববাসীর কাছে উপস্থাপন করা হবে মুজিববর্ষে। বঙ্গবন্ধুর সংগ্রাম থেকে শুরু করে সকল আর্জন বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরা হবে।

কাদের বলেন, আমাদের চিন্তাভাবনা, আমাদের আইডিওলজি এসব কিছু নিয়ে আমরা একটা বছর সুনামগঞ্জ থেকে সুন্দরবন, টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত সারা বাংলাদেশে আওয়ামী লীগকে এবং মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে মুক্তিযুদ্ধের মূল ধারা তথা মুজিবের ধারায় অনুপ্রাণিত করব, উজ্জীবিত করব। আমাদের চলার পথকে আরও গতিময় করব, বেগবান করব ইতিহাস ঐতিহ্যের আলোকে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ২২ এবং ২৩ মার্চ সংসদে বিশেষ অধিবেশন ডাকা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন আপু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহম্মদ মান্নাফি, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, শ্রমিক লীগের সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।