ব্রেকিং নিউজ

পকেটে প্রেমিকার ছবি, নিজ অস্ত্রের গুলিতে কনস্টেবলের ‘আত্মহত্যা’

news-details
দেশজুড়ে

বরিশাল প্রতিনিধি : 

বরিশালে নিজের অস্ত্রের গুলিতে পুলিশের এক কনস্টেবলের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, বিষয়টি আত্মহত্যা। তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয় উল্লেখ করে ‘চিরকুট’ লিখে গেলেও তার পকেটে এক তরুণীর ছবি পাওয়ার কারণে আত্মহত্যার বিষয়টি প্রেমঘটিত হতে পারে বলে ধারণা পুলিশ কর্মকর্তাদের।

 নিহত কনস্টেবললের নাম হৃদয় চন্দ্র সাহা (২১)। শুক্রবার (৬ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে বরিশাল জেলা পুলিশ লাইসের নতুন ৬তলা ব্যারাক ভবনের ছাদ থেকে তার গুলিবিদ্ধ রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নাঈমুল হক জানান, মৃতদেহের পাশে ৩টি চিরকুট পাওয়া গেছে। একটিতে তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী বলে লেখা রয়েছে। দ্বিতীয়টি তার বাবাকে দেখভাল করার জন্য ভাইয়ের প্রতি অনুরোধ জানানো এবং তৃতীয়টিতে বাবার উদ্দেশে রেখা চিঠিতে পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়ার কথা উল্লেখ করা হলেও মৃত্যুর কারণ বলা হয়নি। প্রাথমিকভাবে ওই চিরকুটগুলো তার নিজের লেখা বলে শনাক্ত করেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। 

জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পুলিশ লাইন্সের ২ নম্বর গেটে সেন্ট্রি ডিউটি ছিলো কনস্টেবল হৃদয়ের। এরপর রাতের যে কোনো সময় ৬ তলা ব্যারাক ভবনের ছাদে উঠে তিনি তার নিজের নামে ইনস্যুকৃত চাইনিজ রাইফেল দিয়ে থুতনিতে একটি গুলি করে। সাথে সাথে ছাদে লুটিয়ে পড়েন তিনি। রাতে সেখানেই পড়ে ছিল তার লাশ। পাশেই ছিল সরকারি অস্ত্রটি।

শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে ওই ব্যারাকের ছাদে কনস্টেবল হৃদয়ের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ সদস্যরা জেলা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের জানায়। খবর পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। 

পুলিশ জানায়, হৃদয়ের পকেটে পাওয়া ছবির তরুণীর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি ওই তরুণির অন্যত্র বিয়ে হয়ে যায়। এ কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে সে আত্মহত্যা করেছে বলে সন্দেহ করছেন তারা। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন কোতোয়ালি থানার কর্মকর্তারা।  

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।