চাহিদা বাড়ায় বেড়েছে ফায়ার সেফটি যন্ত্রের দাম

news-details
অর্থনীতি

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।। 

রাজধানীতে বেশ কয়েকটি ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রের বাজারে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। চাহিদা বেশি থাকায় ফায়ার সেফটি সরঞ্জামাদির দাম বাড়ার পাশাপাশি বাজারে ঢুকছে নিণ্মমানের ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ফায়ার সেফটি যন্ত্রপাতি। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছে ফায়ার সেফটি ব্যবসায়ীদের সংগঠন ফোয়াব। আর বাজার মনিটিরিংয়ের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

চকবাজার থেকে বনানীর এফআর টাওয়ার, এরপর গুলশান সিটি করপোরেশন মার্কেট, খিলগাঁও বাজারসহ রাজধানীর বেশ কয়েকটি স্থাপনায় অগ্নিকাণ্ডের পর অগ্নি প্রতিরোধে নড়েচড়ে বসেছে দেশবাসী।

আগুন নেভানো বা প্রতিরোধী সরঞ্জামাদি কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন রাজধানীর নবাবপুরের ফায়ার সেফটির বাজারে। অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রাদির চাহিদার সুযোগে অসাধু ব্যবসায়ীরা প্রতি পাঁচ কেজি ড্রাই পাউডার সিল্ডিডারে পাঁচশো আর নয় লিটার ফায়ার ইস্টিগুইশারে বাড়িয়ে দিয়েছে হাজার টাকা করে।

দুর্ঘটনা হওয়ার পর সবাই একটু সচেতন। আমার বাসার জন্য কিনছি। ২০টি নিবো। দোকানী বলছেন মিটারটা একটু ভালো এজন্য একটু দাম বেশি।

অন্যদিকে ফায়ার সেফটি যন্ত্রাদির চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় বাজারে ঢুকছে নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদি।

খুচরা ও ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীরা জানান, বিভিন্ন ডকইয়ার্ডে পুরনো জাহাজ, লঞ্চ ও স্টিমার থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ এসব অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদি ঢুকছে বাজারে। ফলে দুর্ঘটনা বাড়ার ঘটনা কমার চেয়ে আরও বাড়ছে।

ক্রেতারা বলছেন, আগের থেকে কিছু চাহিদা বাড়ছে। এখন আবার কমে আসছে। আমি মনে করি এটা বজায় থাকা উচিৎ।

নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ সিলিন্ডারের বিষয়টি স্বীকার করে ফায়ার সেফটি ব্যবসায়ীরা বলছেন, এ বিষয়ে তারা শিগগিরই ব্যবস্থা নিবেন।

ফোয়াব সভাপতি নিয়াজ আলী চিশতী বলেন, আমাদের এই অভিযোগটা দীর্ঘ দিনের। আমরা তাদেরকে কন্ট্রোল করার ব্যবস্থা করবো। অনেকে আমাদের সদস্য না। তারাই এগুলো করে থাকে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাজার থেকে এসব নকল ফায়ার সেফটি সরাতে দরকার সরকারের শক্ত বাজার মনিটরিং।

বুয়েটের অধ্যাপক ড. রাকিবুল আহসান বলেন, দেশি ম্যানুফ্যাকার যদি হয় তাহলে বিএসটিআই দেখতে পারে তাদের ম্যানুফ্যাকচার টিকমতো হচ্ছে কিনা।

প্রতিবছর শুধু ফায়ার সেফটি সংগঠন ফোয়াবের মাধ্যমেই প্রায় ৫ লাখ ফায়ার ইস্টিংগুইশার সিলিন্ডার আমদানি করা হয়।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।