ব্রেকিং নিউজ

নিখোঁজ সাংবাদিক কাজলের সন্ধান দাবিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক

 ৯ দিন ধরে নিখোঁজ ফটো সাংবাদিক ও পক্ষকাল ম্যাগাজিনের সম্পাদক শফিকুল ইসলাম কাজলের সন্ধান দিতে প্রশাসনকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম বেঁধে দিয়েছেন সাংবাদিকরা। এ সময়ের মধ্যে তাকে খুঁজে না দিলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ )সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) আয়োজিত এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে থেকে এ আল্টিমেটাম দেওয়া হয়।

সাংবাদিক নেতারা বলেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কাজলের সন্ধান দিতে না পারলে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)সহ সকল সাংবাদিকদের সংগঠনের নেতাদের সাথে আলোচনা করে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু বলেন, গণমাধ্যম বান্ধব বর্তমান সরকারের আমলে সাংবাদিক নিখোঁজ বা হয়রানির ঘটনা মেনে নেয়া যায় না। কোন কোন মহল সরকারকে বিপদে ফেলতে বা সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে এই হীন অপকর্ম করেছে। যা স্বাধীন ও মুক্ত সাংবাদিকতার পরিপন্থি।

 তিনি আরো বলেন, কাজল শৈশব থেকেই প্রতিবাদী ছিল। ছাত্র আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে ভূমিকা পালন করেছেন। ওয়ান-ইলেভেনের সময় গণমাধ্যমের উপর যখন কালো ছায়া নেমে এসেছিল। সে কালো ছায়া থেকে গণমাধ্যমকে মুক্ত করার অগ্রণী ভূমিকা ছিল কাজল। নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য কাজ করেছেন। কিন্তু এই স্বাধীনদেশে হঠাৎ করে গত ১০ মার্চ থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আমরা পুলিশ কর্মকর্তা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে কথা বলেছি।

 স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাদেরকে বলেছেন, তিনি বিষয়টি গভীরভাবে দেখবেন। আমরা বিশ্বাস করতে চাই কাজল অক্ষত অবস্থায় আমাদের মাঝে, তার পরিবারের মাঝে অতি দ্রুত ফিরে আসবে।

একই সাথে তিনি বর্তমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা ও সাংবাদিকদের সুরক্ষায় গণমাধ্যম মালিকদের প্রতিষ্ঠান অ্যাটকো এবং নিউজপেপারস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব) নেতৃবৃন্দের প্রতি বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান। তিনি সাংবাদিকদের করনোভাইরাসের সংক্রমনমুক্ত রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান জানান।

কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, এতদিন সাংবাদিকেরা অন্যদের নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ লিখে আসছেন। এখন তারা নিজেরাই এর শিকার। সাংবাদিক সমাজ কাজলকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পেতে চান। তারা কাজলকে ফিরে পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 
 
নিখোঁজ সাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলের ছেলে মনোরম পলক বলেন, আমার বাবা গত ১০ মার্চ বিকেল ৩টায় বাসা থেকে বের হন। এরপর থেকে তার সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ হয়নি। সরকারের কাছে আমাদের আবেদন, আমার বাবাকে খুঁজে বের করে আমাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিয়ে সহায়তা করবেন। 

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে)সহ-সভাপতি এম এ কুদ্দুস। সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক খায়রুল আলমের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নিখোঁজ সাংবাদিক কাজলের ছেলে মনোরম পলক ,বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) যুগ্ম মহাসচিব আবদুল মজিদ,সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব অমিয় ঘটক পুলক, ডিইউজের প্রচার সম্পাদক আছাদুজ্জামান আসাদ, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য রাজু হামিদ, ঢাকা সাংবাদিক পরিবার বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন,ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, ডিইউজের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আকতার হোসেন, ডিইউজের কার্যনির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য গোলাম মুজতবা ধ্রুব,  দৈনিক জনতার ডেপুটি ইউনিট চিফ জাহাঙ্গীর খান বাবু প্রমুখ।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।