ব্রেকিং নিউজ

সুনসান পরিস্থিতিতে চুরি-ডাকাতি ঠেকাতে সজাগ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের মহামারী প্রতিরোধে প্রায় সবার ঘরে অবস্থানের কারণে সুনসান পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে কেউ যাতে চুরি-ডাকাতি না করতে পারে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সজাগ রয়েছে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে নিজের বাসভবনের সামনে থেকে একটি বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে বাড়ির আশপাশ জীবানুমুক্ত করার কর্মসূচি উদ্বোধনের পর তিনি সংবাদিকদের সামনে একথা বলেন।

সবাই সচেতন হলে বাংলাদেশে কোভিড-১৯ রোগ পরিস্থিতি ইউরোপের মত হবে না আশা প্রকাশ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “অহেতুক যেন ভিড় না হয়, জনগণ যাতে বের না হন।

“আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সচেতন রয়েছে, জনগণকে ঘরে থাকার জন্য উদ্ভুদ্ধ করছে এবং কোথাও যেন চুরি ডাকাতি ঘটতে না পারে, সেদিকেও নজর রাখছে।”

গতবছরের শেষে চীনের উহান থেকে নতুন করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়। কঠোর পদক্ষেপ ও জনজীবনে বিধিনিষেধ জারি করে চীন আড়াই মাসে পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছে।

কিন্তু এর মধ্যে প্রাণঘাতী এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বাকি বিশ্বে। সবচেয়ে বাজে পরিস্থিতি রয়েছে ইউরোপে।এর সবকটি দেশ করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে এর মধ্যে ইতালিতে সবচেয়ে বেশি। স্পেন ও ফ্রান্সেও দিন দিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। তবে চীনের পর এখন যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের ১৭৫ দেশে ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৩০ হাজার মানুষ। এতে মৃতের সংখ্যা ২৪ হাজার ছড়িয়ে গেছে।

শুক্রবার সকালে ধানমন্ডি মন্ত্রীর বাসভবনের সামনে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কর্মসূচির পর সংবাদিকদের তিনি নাগরিকদের সচেতন হওয়ার ও বাসায় থাকার আহ্বান জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যারা যেখানে আছেন, সেখানে থেকে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কাজ করে যাবেন। সবাইকে আহ্বান রইল, আপনারা যার যার বাসায় থাকুন, যেটা সরকার ঘোষণা করেছেন, সেই ঘোষণা অনুযায়ী এবং নিজেকে পরিষ্কার করুন, হাত ধৌত করুন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের করোনা ভাইরাস সেল ২৪ ঘণ্টার খোলা রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “কোথায় কী হচ্ছে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে এবং নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে।”

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে ৪৮ জন আক্রন্ত হয়েছে, মারা গেছেন ৫ জন।সংক্রমণ ঠেকাতে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছেন সরকার। ছুটিতে সবাইকে ঘরে থাকার আহবান জানানো হয়েছে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।