ব্রেকিং নিউজ

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় ১৪ দিন নদীতে ভাসমান অবস্থায় থাকবে সুন্দবন-১৪ লঞ্চ

news-details
দেশজুড়ে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি

পটুয়াখালীতে করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসন গত ২৪ মার্চ থেকে জেলা অভ্যান্তরে ও দুরপাল্লার সকল যাত্রবহী লঞ্চ, বাস চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ২৬ মার্চ গভীর রাতে ঢাকা থেকে পটুয়াখালীতে যাত্রী নিয়ে আসে বিলাসবহুল দোতালা লঞ্চ সুন্দরবন ১৪। লঞ্চটি এসে পটুয়াখালী বন্ধরে নোঙ্গর না করে বন্দর সংলগ্ন লোহালীয়া নদীর পূর্ব তীরে নোঙ্গর করে। খবর পেয়ে বন্দর কমকর্তা খাজা সাদিক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অমিত রায় ও গোলাম সরওয়ার গভীর রাতে লঞ্চটিতে যায়। এ সময় লঞ্চে কোন যাত্রী ছিল না। তবে লঞ্চের ক্রু, কেবিনবয়, মাষ্টার, ইঞ্জিন চালকসহ ৩৬ জন লোক ছিল। কেন কি কারনে এ লঞ্চটি গভীর রাতে পটুয়াখালী আসে এর কোন সঠিক জবাব দিতে না পারায় লঞ্চটিকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে নদীতে ভাসমান অবস্থায় রাখার আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদলত।

তবে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, লঞ্চটি কয়েক হাজার যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে পটুয়াখালী আসে এবং তারা পথে পথে যাত্রী নামিয়ে দেয়। সব শেষে পটুয়াখালী লোহালিয়া যাত্রী নামিয়ে দ্রুত লঞ্চটি খালী করে। 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।