ব্রেকিং নিউজ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভারত ফেরত ১৬ বাংলাদেশি কোয়ারেন্টাইনে

news-details
দেশজুড়ে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাউনে ভারতে আটকে পড়া ১৬ জন বাংলাদেশি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফিরেছেন। তাদেরকে সরাসরি জেলার বিজয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আখাউড়া-আগরতলা চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন সীমান্তপথে ভারত থেকে তারা বাংলাদেশে আসেন। এ সময় সীমান্তের নো-ম্যান্সল্যান্ডে তাদেরকে করোনা নাশক স্প্রে করা হয়।

আখাউড়া চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনে অস্থায়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক মো. মোশাররফ হোসেন বলেন, ভারত থেকে আগত যাত্রীদের প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষায় তাদের শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক দেখা গেছে। তবুও করোনাভাইরাস সংক্রমণ সন্দেহে তাদের বাসায় না পাঠিয়ে বিশেষ নিরাপত্তায় এ্যাম্বুলেন্সে করে বিজয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কেন্দ্রের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

ভারত থেকে আগত বাংলাদেশীদের মধ্যে ৮ জন গোপালগঞ্জ জেলার বাসিন্দা। অন্যরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, হবিগঞ্জ ও নেত্রকোণা জেলার বাসিন্দা বলে ইমিগ্রেশন সূত্র জানায়। আখাউড়া স্থলবন্দর চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (এসআই) মো. হামিদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে ভারত থেকে ১৬ জন বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী যাত্রী দেশে প্রবেশ করেন। যাত্রীদের মধ্যে ১৩ জন পুরুষ ও ৩ জন নারী রয়েছে।

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে এ পথ দিয়ে ভারত থেকে আগত সব যাত্রীকে বিজয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক থাকতেই হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, এ পথে ভারত থেকে আগত কোনো যাত্রীর করোনাভাইরাসের আলামত পাওয়া গেলে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইসোলেশনে রাখা হবে। তবে এ পর্যন্ত কোন করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।