ব্রেকিং নিউজ

যাত্রীর চাপে দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ, শিমুলিয়ায় ভিড়

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক :

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যেই পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে ঢাকা থেকে ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। এমন অবস্থায় অতিরিক্ত যাত্রীর চাপের কারণে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে ঘাট কর্তৃপক্ষ। আবার অন্যদিকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ঘরমুখো মানুষের উপচেপড়া ভিড়ও দেখা গেছে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহনের দৌলতদিয়া ঘাটের শাখা ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি বলেন, অতিরিক্ত যাত্রীর কারণে এই নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

এর আগে, সকালে পাটুরিয়া ফেরিঘাট থেকে ছেড়ে আসা প্রতিটি ফেরিতে শত শত ঘরমুখো যাত্রী দৌলতদিয়ায় আসতে দেখা গেছে। কোনো প্রকার সামাজিক দূরত্ব না মেনে গা ঘেঁষে ঘাটে নামছেন যাত্রীরা। পাশাপাশি ব্যক্তিগত গাড়িও পারাপার হচ্ছে।

এছাড়া দৌলতদিয়া প্রান্তে নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে রয়েছে কয়েকশ পণ্যবাহী ট্রাক। দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে পারের অপেক্ষায় রয়েছে এসব পণ্যবাহী ট্রাক।

করোনাভাইরাসের ভয়াবহতার মধ্যেই শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ঘরমুখো মানুষের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। সোমবার সকাল থেকে ঘাট এলাকায় ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফেরা হাজারো মানুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

অন্যদিকে শিমুলিয়া ঘাটের মাওয়া ট্রাফিক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হেলাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, ঘাটে যানবাহনের পাশাপশি যাত্রীদের চাপ অত্যাধিক রয়েছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও ঢাকা থেকে যাত্রীরা পায়ে হেঁটে, মোটরসাইকেল ও অটোরিকশায় চেপে ঘাটে আসছেন। এমনকি রাতের বেলায় যাত্রীরা ট্রাকে করে ঘাটে পৌঁছেছেন।

‘ঘাটে ফেরি ভেড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাজারো যাত্রী গাদাগাদি করে ফেরিতে চড়ছেন। সামাজিক দূরত্ব উপেক্ষা করেই যাত্রীরা নদী পারাপার করছেন’

বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাটের ম্যানেজার ম্যারিনা আহামদ আলী বলছেন, কর্তৃপক্ষ ৪টি ফেরি চলাচলের নির্দেশ দিয়েছে। ওইসব ফেরি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। এখন যেরকম চাপ রয়েছে তা বেলা বাড়ার সাথে সাথে কমে যাবে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।