পা কেটে নেওয়া সেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বহিষ্কার

news-details
দেশজুড়ে

।। ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি।। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় কালা মিয়া নামে একজনের পা কেটে নেওয়ার ঘটনায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আবুল বাশারকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গতকাল শুক্রবার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবক লীগের এই নেতার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগও আনা হয়েছে।

এর আগে গত শুক্রবার বিকেলে উপজেলার রূপসদী গ্রামে পা কেটে নেওয়ার এই ঘটনা ঘটে। এদিকে কালা মিয়ার পা কেটে নেওয়ার ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল বাশারের সঙ্গে বাঞ্ছারামপুর উপজেলার রূপসদী গ্রামের কালা মিয়ার বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরেই আবুল বাশারের লোকজন শুক্রবার বিকেলে কালা মিয়া (৪৫) ও তার ছেলে বিপ্লব মিয়াকে (১৯) বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে টেঁটাবিদ্ধ করে।

পরে কালা মিয়ার ডান পায়ের হাঁটু থেকে নিচ পর্যন্ত কেটে নিয়ে যায়। এ ছাড়া তার ছেলে বিপ্লবের দুই পায়ের রগ কেটে টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাহ উদ্দিন চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। তবে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে কালা মিয়ার কাটা পায়ের সন্ধান এখনো পাওয়া যায়নি বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।