কাল থেকে শুরু হচ্ছে ভোটার তালিকা হালনাগাদ, জীবিতকে মৃত ভোটার বানানোর বিষয়ে ইসির সতর্কতা

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে। চলবে ১৩ মে পর্যন্ত। এ কাজে কোনোভাবেই যেন জীবিত ভোটারের নাম মৃত হিসেবে হালনাগাদ না করা হয়, সেজন্য সতর্ক থাকতে মাঠ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) থেকে শুরু হচ্ছে। চলবে ১৩ মে পর্যন্ত। এ কাজে কোনোভাবেই যেন জীবিত ভোটারের নাম মৃত হিসেবে হালনাগাদ না করা হয়, সেজন্য সতর্ক থাকতে মাঠ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সংস্থাটির সহকারী সচিব মোশাররফ হোসেন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত নিদের্শনাটি রোববার (২১ এপ্রিল) সব জেলা/সিনিয়র জেলা ও উপজেলা/থানা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়। এতে দেওয়া হয়েছে মোট ১৬টি নির্দেশনা।

বলা হয়েছে, ২০০১ , ২০০২, ২০০৩ ও ২০০৪ সালের ১ জানুয়ারি অথবা তার আগে যাদের জন্ম তাদের এবং বিগত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে যারা বাদ পড়েছেন, তাদের তথ্য নিবন্ধনের জন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে সংগ্রহ করা হবে। এছাড়া এ কর্মসূচিতে ভোটার তালিকা হতে মৃত ভোটারের নাম কর্তন এবং আবাসস্থল পরিবর্তনের কারণে স্থানান্তরের তথ্যও সংগ্রহ করতে হবে।

তথ্য সংগ্রহকালে কোনো ব্যক্তির তথ্য ফরম পূরণের আগে তিনি ইতিপূর্বে ভোটার হয়েছেন কি-না তা অবশ্যই নিশ্চিত করা; বাদ পড়া ভোটারদের ক্ষেত্রে বাদ পড়ার কারণ যাচাইপূর্বক নিশ্চিত হওয়া; কোনো ব্যক্তির নামে আগে বা পরে কোন পেশা, খেতাব, পদবি অর্জিত শিক্ষাগত যোগ্যতা ইত্যাদি সংযুক্ত না করা; ভোটারযোগ্য ব্যক্তির বাংলা নামে ইংরেজি বানান যথাযথভাবে লিপিবদ্ধ করা; বাড়ি বাড়ি যাওয়ার সময় ভোটারযোগ্য অনুপস্থিত ব্যক্তিদের তথ্যাদি অবশ্যই রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করার জন্যও নির্দেশ দিয়েছে ইসি।

এছাড়া নিবন্ধন কেন্দ্রে আসার জন্য নিবন্ধন স্লিপ (ফরম-৫) ফরম পূরণের সঙ্গে সঙ্গে দেওয়া; সুপারভাইজার কর্তৃক তথ্যসংগ্রহকারীদের প্রতিদিনের তথ্য সংগ্রহের কাজ তদারকি ও নমুনা যাচাই করা; সুপারভাইজররা তথ্য সংগ্রহকারীর পূরণকৃত ফরমের কিছু অংশ দৈবচয়নের ভিত্তিতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে শুদ্ধতা যাচাই করা ও কোনো ভুল ধরা পড়লে তা শুদ্ধ করা; ভোটারযোগ্য মহিলাদের নিবন্ধনের বিষয়টি অবশ্যই নিশ্চিত করা অর্থাৎ কোন ক্রমেই ভোটারযোগ্য কোন মহিলা বাদ না পড়েন, তা তথ্য সংগ্রহকারী ও সুপারভাইজার কর্তৃক নিশ্চিত করা, নিবন্ধন ফরম পূরণকারীদের নিবন্ধন কেন্দ্রে উপস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত করার কথাও বলা হয়েছে।

বিশেষ এলাকার জন্য তথ্য ফরম পূরণের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে নজর দেওয়া ও  বিশেষ তথ্য ফরম পূরণের সময় সংশ্লিষ্ট তথ্য যাচাই করে অন্তর্ভুক্ত করা, বিশেষ এলাকাসমূহের জন্য ফরম-২ এর সঙ্গে বিশেষ তথ্য ফরম পূরণ করা; এক এলাকা হতে অন্য এলাকায় নাম স্থানান্তরের আবেদন সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রসহ ভোটার কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন অফিসারের কাছে দাখিল করা; মৃত ভোটারের নাম কর্তনের জনা ফরম-১২ এ তথ্য সংগ্রহকালে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা। কোনক্রমেই জীবিত ভোটারের নাম মৃত হিসেবে যেন তথ্য সংগ্রহ না করা হয় সেজন্য সতর্ক থাকার কথা বলা হয়েছে নির্দেশনায়।

আবার তথ্যসংগ্রহকারী ও শনাক্তকারীকে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সুস্পষ্ট ভাবে লিখতে এবং কোনোক্রমেই যেন অপ্রাপ্ত বয়স্ক, রোহিঙ্গা এবং অবাঞ্ছিত ব্যক্তিদের তথা সংগৃহিত না হয় সে বিষয়েও সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়েছে ইসি।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।