ছাত্রীকে জড়িয়ে ধরে শিক্ষক বরখাস্ত

news-details
দেশজুড়ে

।। নাটোর প্রতিনিধি ।।

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে যৌন নিপিড়নের অভিযোগে আটক সহকারী শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত এবং ঘটনা
তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। এদিকে আটক শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পুলিশের পরামর্শে বন্ধ রাখেন বিভিন্ন মহল।

রোববার ২২ ধারায় ছাত্রীর জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন আদালত এবং আটককে নাটোর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে যৌন নিপিড়নের অভিযোগে আটক সহকারী শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত ও এ ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন তিন দিনের মধ্যে জমা দিতে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি।

রোববার দুপুরে সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার হাবিবুর রহমান গফুরাবাদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে গিয়ে এ নির্দেশনা দিলে এ
সিদ্ধান্ত নেয় কমিটি।

এদিকে রোববার সকালে বিদ্যালয়ের সামনে আটক শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করতে চাইলে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের পরামর্শে স্থানীয় ও শিক্ষার্থীরা কর্মসূচি বন্ধ রাখে। রোববার ২২ ধারায় ছাত্রীর জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন আদালত। 

অভিযুক্তকে নাটোর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম শেখ পিপিএম।

উলে­খ্য, গত শনিবার দুপুরে বিদুৎ না থাকায় স্কুল সংলগ্ন আম বাগানে ক্লাস নিতে চাইলে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা কক্ষ থেকে বের হয়। তখন শিক্ষকের নির্দেশে ওই কক্ষ থেকে চেয়ার আনতে যায় ওই ছাত্রী। এমন সময় সহকারী শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ ছাত্রীকে জোর করে হাত ধরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দিয়ে যৌন নিপিড়ন করেন। পরে বিষয়টি ছাত্রী তার বাবাকে খুলে বলে এবং স্থানীয়দের সহযোগীতায় পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গফুরাবাদ বাজার থেকে সহকারী শিক্ষক আবুল কালাম আজাদকে আটক করে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।