শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০, গ্রেফতার ২৪

news-details
জাতীয়

।। আন্তজার্তিক ডেস্ক ।।

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত প্রায় ৫শ জন। এই সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৪ জনকে আটক করা হয়েছে। তুলে নেয়া হয়েছে কারফিউ। তবে এখনও বন্ধ রয়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
 

শুরুটা রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল ৮টা ৪৫ মিনিট। ষষ্ঠ বিস্ফোরণ ৯টা ৫ মিনিটে। মোট ২০ মিনিটের হত্যাকান্ডে রক্তাক্ত শ্রীলঙ্কা। পরে আরো দুটি হামলা। সব মিলিয়ে কয়েকশ মানুষের প্রাণহানি লঙ্কানদের সাথে শোকস্তব্ধ পুরো বিশ্ব।

ভাঙা কাঁচের গুড়ো, ধসে পড়া মূর্তি আর নিরাপত্তা বাহিনীর বাড়তি উপস্থিতি জানান দিচ্ছে একদিন আগের নৃশংসতার। বেরিয়ে আসছে হামলার দিনের বেশ কিছু বর্ণনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিনামন গ্র্যান্ড হোটেলে, ইস্টার ব্রেকফাস্ট বুফেতে অন্যদের সাথেই লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন আত্মঘাতি হামলাকারী।

"৩০ বছর ধরে যুদ্ধ দেখেছি আমরা। কিন্তু গত ১০ বছর শান্তি ছিলো সবখানে। আমরা যখন শান্তিতে অভ্যস্থ হয়ে উঠেছি ঠিক তখনই এই হামলা হলো। যা বিস্ময়কর আর দু:খজনক।"
 
সোমবার (২২ এপ্রিল) সকালে প্রত্যাহার করা হয়েছে কারফিউ। বন্ধ রয়েছে সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও স্টক এক্সচেঞ্জ। হামলায় জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত বেশ কয়েক জনকে আটক করা হয়েছে। তবে কারা হামলা চালিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

এখনো বন্ধ রয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এবং হোয়াটস অ্যাপ। আক্রান্তদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেন, 'হতাহত সবার প্রতি আমার সমবেদনা রয়েছে। নিন্দা জানাচ্ছি হামলার। এই সংকটময় সময় দেশের নেতৃত্ব ও অর্থনীতির জন্য চ্যালেঞ্জ। শোক ভুলে জড়িতদের খুঁজে বের করতে কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছি আমরা। এ ঘটনার বিচারে প্রতিরক্ষা বিভাগ, তিন বাহিনী ও পুলিশ, সব ধরণের শক্তি ব্যবহার করা হবে।'

এদিকে রয়টার্স বলছে, মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর হুঁশিয়ারি দিয়েছে, শ্রীলঙ্কায় আরো হামলার পরিকল্পনা করছে সন্ত্রাসীরা। কোন ধরণের হুমকি না দিয়েই হামলা হতে পারে শপিংমল, পর্যটন এলাকা, হোটেল, বিমানবন্দর, প্রার্থনার জায়গাসহ জনসমাগমস্থলে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।