ব্রেকিং নিউজ

আইপিএলে ভার্চুয়াল কমেন্ট্রি

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

করোনা বদলে দিয়েছে পৃথিবী। অফিস-আদালতের কার্যক্রম চলছে ঘরে বসে। টক শো, সেমিনার প্রবেশ করেছে নতুন যুগে। বাড়িতে বসেই অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অতিথিরা যুক্ত হচ্ছেন এসব আয়োজনে। ঘরে বসে কি ক্রিকেট ম্যাচের কমেন্ট্রি করা সম্ভব? কঠিন কিন্তু অসম্ভব নয়। এর স্টেজ রিহার্সাল হয়ে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৬ ওভারের ‘থ্রি টিম ক্রিকেটে’। ভারত থেকে লাইভ কমেন্ট্রি করেছেন ইরফান পাঠান, সঞ্জয় মাঞ্জরেকার ও দীপ দাশগুপ্ত। বারোদার বাড়ি থেকে ইরফান পাঠান, কলকাতা থেকে দীপ দাশগুপ্ত ও মুম্বাইয়ের বাড়িতে বসে ম্যাচের ধারাভাষ্য দিয়েছেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকার।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠান স্টার স্পোর্টসের চাওয়া, প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ভার্চুয়াল কমেন্ট্রির যুগের শুরুটা হোক আইপিএলের ত্রয়োদশ আসর দিয়ে।

সাবেক ভারতীয় পেসার ইরফান পাঠান ভার্চুয়াল কমেন্ট্রি নিয়ে তার অভিজ্ঞতা নিয়ে বলেন, ‘অসাধারণ অভিজ্ঞতা হয়েছে। যদিও শুরুতে ঘাবড়ে ছিলাম। কারণ, ইন্টারনেট স্পিডের ওপরে অনেক কিছু নির্ভর করে। ভালো ইন্টারনেট পরিষেবা না পেলে স্পষ্ট আওয়াজ শোনা যাবে না। লাইভ ম্যাচের সময় অনেক কিছু ঘটে। পরিস্থিতি অনুযায়ী ধারাভাষ্য দেওয়া যাবে কি না তা নিয়েও উদ্বেগ ছিল। তবে সফলভাবেই আমরা লাইভ কমেন্ট্রি করেছি। বাড়িতে বসে মাঠের সব কিছু দেখা সম্ভব নয়। তাই খেলার বাইরে কি হচ্ছে তা জানা যাবে না। তবে আইপিএলে এ রকম কিছু হলে অভিনব উদ্যোগ হবে।’

৩৬ ওভারের ‘থ্রি টিম ক্রিকেটে’ ভার্চুয়াল কমেন্ট্রির প্রবর্তক স্টার স্পোর্টসই। তারা এবার চাচ্ছে বাংলা, তামিল, তেলেগু ও কন্নড় ভাষায় যারা আইপিএলে টেলিভিশনের ম্যাচগুলোর ধারাভাষ্য দেবেন; তারা কাজটা করবেন বাড়িতে বসেই। আইপিএলের ১৩তম আসরের আয়োজক সংযুক্ত আরব আমিরাত। ইংরেজি ও হিন্দি ধারাভাষ্য হবে স্টেডিয়ামের কমেন্ট্রি বক্সে বসেই। করোনাকালে যতটা সম্ভব কম লোকবল নিয়ে আরব আমিরাতে আইপিএল আয়োজন করার পরিকল্পনা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। সেই পরিকল্পনা থেকেই ভার্চুয়াল কমেন্ট্রির ভাবনা সম্প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানটির।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।