ব্রেকিং নিউজ

পিএসজিকে ফরাসি কাপ জেতালেন নেইমার

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

দীর্ঘ বিরতিতেও পায়ে ধার কমেনি নেইমারের। তিন প্রীতি ম্যাচে চার গোল করা ব্রাজিলিয়ান তারকাকে নিয়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি) কোচ টমাস টুখেল বলেছিলেন, ‘ব্যবধান গড়ে দিতে পারেন নেইমার। কারণ ও সেরা ছন্দে রয়েছে।’ ফরাসি কাপের ফাইনালে পার্থক্য গড়ে দিলেন নেইমারই। শুক্রবার রাতে নেইমারের একমাত্র গোলে সেন্ট এতিয়েনকে ১-০ তে হারিয়েছে পিএসজি। প্রতিযোগিতার সফলতম দলটির এটি ত্রয়োদশ শিরোপা। টানা চারবার ফরাসি কাপ জয়ের পর গত বছরের ফাইনালে টাইব্রেকারে রেনের কাছে হেরেছিল পিএসজি। এক বছর পরই নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব ফিরে পেল দলটি।

প্যারিসের স্তাদে দি ফ্রান্স স্টেডিয়ামে বেশিরভাগ সময় জুড়ে ১০ জন নিয়ে খেলে সেন্ট এতিয়েন। চতুর্দশ মিনিটে পিএসজিকে লিড এনে দেন নেইমার।

কিলিয়ান এমবাপ্পের শট গোলরক্ষক ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ। ফিরতি শটে বল জালে জড়ান নেইমার।

২৭তম মিনিটে এমবাপ্পেকে মারাত্মক ট্যাকল করে বসেন এতিয়েন ডিফেন্ডার লোয়িচ পেরিন। ফাউলকে কেন্দ্র করে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন দু’দলের খেলোয়াড়রা। বেঞ্চের ফুটবলারারও যোগ দেন। লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন পেরিন। এই ঘটনায় হলুদ কার্ড দেখেন দু’দলের চার ফুটবলার। আর পুরো ম্যাচে ১০ জন।

মারাত্মক ওই ফাউলের পর আর মাঠে নামা হয়নি এমবাপ্পের। ম্যাচের শেষ দিকে ক্রাচে ভর করে চোখে জল নিয়ে ডাগআউটে আসেন ২১ বছর বয়সী এই ফরাসি ফরোয়ার্ড। গোড়ালির এই চোটে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে এমবাপ্পের মাঠে নামা নিয়ে তৈরি হয়েছে শঙ্কা।

পরবর্তীতে একাধিক সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি পিএসজি। নেইমারের গোলটি শেষ পর্যন্ত ভাগ্য গড়ে দেয় ম্যাচের।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে পিএসজিকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে লীগ ওয়ান বাতিল করা হয়। তবে ফরাসি কাপ ও ফরাসি লীগ কাপ বাতিল করা হয়নি। আগামী ৩১শে জুলাই ফরাসি লীগ কাপের ফাইনালে পিএসজির প্রতিপক্ষ অলিম্পিক লিঁও। এরপর ১২ই আগস্ট পিএসজি মাঠে নামবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ আটের ম্যাচে। পর্তুগালের লিসবনে নেইমাররা মাঠে নামবেন ইতালিয়ান ক্লাব আটালান্টার বিপক্ষে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।