ব্রেকিং নিউজ

বংশালে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণ, সন্তানের পর মারা গেলেন বাবাও 

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক :

রাজধানীর বংশালে বাসায় গ্যাস লাইন থেকে বিস্ফোরণের ঘটনায় দুই সন্তানের পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাবা যাবেদ হোসেনেরও (৩৫) মৃত্যু হয়েছে।

 সোমবার বিকেলে তিনি মারা যান। এ নিয়ে গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের ৩ জনের মৃত্যু হলো। বংশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহীন ফকির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া, দুই শিশুর মা শিউলি আক্তার (২৫) শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন।

ওসি মো. শাহীন ফকির জানান, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে কসাইটুলির বাসিন্দা শিমুলের দোতলা বাড়ির নিচ তলায় গ্যাস লাইনে লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ হয়। এতে বাসার একপাশের দেয়াল ধসে নিচে চাপা পড়ে যাবেদের ছেলে মইনুল (৩) মারা যায়। আর দগ্ধ হয় মইনুলের মা শিউলী, বাবা যাবেদ ও বোন জান্নাত (৫)। তাদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। দেয়াল চাপায় নিহত শিশুটির মরদেহ মিডফোর্ড হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়।
শাহীন ফকির বলেন, হাসপাতালে ভর্তির পর আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জান্নাত মারা যান। আজ সোমবার বিকেলে আইসিইউতে যাবেদের মৃত্যু হয়।

যাবেদের চাচা তফসির উদ্দিন জানান, পরিবারটির ৩ জন মারা গেছে। যাবেদের স্ত্রী শিউলি আক্তারের অবস্থাও ভালো নয়।
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ওই প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, যাবেদের শ্বাসনালিসহ শরীরের ৩৭ শতাংশ দগ্ধ ছিল। তার স্ত্রী হাসপাতালের সপ্তম তলায় সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। তার শরীরের ১৭শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।