আসামীর জামিন নিতে হলে জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে আদালতে  

news-details
জাতীয়

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।।

যেকোন মামলার আসামীর জামিন নিতে হলে তার জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে আদালতে। দেশে প্রথমবারের মতো এই নির্দেশ জারী করেছে চট্টগ্রামের আদালত। এক সপ্তার ব্যবধানে দুটি মামলার ক্ষেত্রে ভুয়া আসামী সেজে আত্মসমর্পন করার চেষ্টার প্রেক্ষিতে এমন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে বলে জানান সিনিয়র আইনজীবীরা। যা আগামী ১৮ মার্চ থেকে কার্যকর হবে। এই ঘটনায় বিব্রত চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতিও। আর পাবলিক প্রসিকিউটর বললেন নতুন এই বিষয়টি ব্যাপকভাবে প্রচার না করে বাস্তবায়নে গেলে দুর্ভোগে পড়বেন বিচার প্রার্থিরা।

গেল ২৬ ফেব্রুয়ারি মহানগর হাকিম আদালতে একটি চেক প্রতারণা মামলায় হাজিরা দিতে আসেন মোজাম্মেল হক নামের একজন আসামী। শুনানী শেষে আদালত তাকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দিলে কাঠগাড়াই দাঁড়েয়েই তিনি স্বীকার করেন তার নাম দিদার। ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে মোজাম্মেল সেজে এসেছেন তিনি। এর এক সপ্তা পর গেল বুধবার এমন আরেকটি ঘটনা ঘটলে নড়েচড়ে বসে আদালত। নির্দেশ দেন জামিনের ক্ষেত্রে এমন প্রতারণা ঠেকাতে এখন থেকে সব আসামীর জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট অথবা জন্মনিবন্ধন জমা দিতে হবে বাধ্যতামুলক।

বিচার প্রার্থীদের অধিকাংশই কোন না কোন আইনজীবীর মাধ্যমেই তার মামলা পরিচালনা করেন। তাই এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনার সঙ্গে আইনজীবীদের কেউ কেউ জড়িত থাকতে পারে এমন সন্দেহে অনুসন্ধান শুরু করেছে আইনজীবী সমিতি। আর জেলা পিপি বললেন, যেহেতু বিষয়টি একেবারেই নতুন আর আইনে এর বাধ্যবাধকতা না থাকায়, এই আদেশ বাস্তবায়নের আগে ব্যাপক প্রচার না করলে দুর্ভোগে পড়বেন বিচার প্রার্থিরা। ভুয়া মামলায় নির্দোষ ব্যক্তির কারাবাস, নাম বা চেহারায় মিল থাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সংশ্লিষ্টদের গাফিলতিতে ভুল আসামীর সাজাভোগের অনেক নজির আছে। এই বাস্তবতায় বিচারালয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রচলন আশার আলো জাগালেও হঠাৎ বাস্তবায়নের সিদ্ধান্তে হিতে বিপরিত হওয়ার আশংকাও করছেন কেউ কেউ।


 

You can share this post on
Facebook

0 Comments

If you want to comment please Login. If you are not registered then please Register First