ডাকসুর ফলাফল নির্ধারিত হয়েছে গণভবন থেকে: দুদু

news-details
রাজনীতি

।। নিজস্ব প্রতিবেদক ।। 

দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণভবন থেকে নির্ধারিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারমান শামসুজ্জামান দুদু। ডাকসুতে কোনো নির্বাচন হয়নি বলেও দাবি করেন তিনি।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

দুদু বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচন তো হয়নি। এখানে আবার ভোটের সংখ্যা কী? কে বেশি, কে কম, কার কতো ভোট এসব আলোচনা কেন? ভোট তো হয়নি, প্রধানমন্ত্রী যা চেয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় (গণভবন) যা চেয়েছে, তাই হয়েছে।

গত ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত ডাকসু নির্বাচনে সহ-সভাপতি (ভিপি) নির্বাচিত হয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা নুরুল হক নুর। নুর ভিপি হওয়ায় এই ফল প্রথমে মেনে নেয়নি ছাত্রলীগ। তাদের অভিযোগ ছিল নুরের শিবির সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

দুদু বলেন, ‘নূরুকে আনা হয়েছে এটা নিয়ে এত সম্মান করার কিছু নেই। এটা ছাত্রলীগেরই একটা অংশ। সকালে এক কথা বলে, দুপুরে এক কথা বলে, বিকালে আরেক কথা বলে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমরা ছিলাম যা বলেছি তাই করেছি। নব্বইয়ের আগে ডাকসু নির্বাচনে কারা জিতেছিল? ছাত্রদল। তাদের বিশ্ববিদ্যালয় ঢুকতে দেওয়া হয়নি। যারা সর্বশেষ ডাকসুর পদে ছিল, তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২ বছর ঢুকতে দেয়া হয়নি।’

ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনের আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদল সর্বশেষ যত বড় মিছিল করেছে এত বড় মিছিল ছাত্রলীগ কি করতে পেরেছে? ১২ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদল যত বড় মিছিল করেছে ১২ বছর ছাত্রলীগ যদি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে না পারতো তাহলে ছাত্রলীগ নামের কোনো সংগঠনই থাকত না।’

বিশ্ববিদ্যালয় আগের অবস্থানে নেই এমন দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এটা কি আমাদের সময়ের বিশ্ববিদ্যালয়, এটা কি বায়ান্নোর আন্দোলনের বিশ্ববিদ্যালয়, এটা কি ঊনসত্তরের বিশ্ববিদ্যালয়, একাত্তরের বিশ্ববিদ্যালয়, নব্বইয়ের বিশ্ববিদ্যালয়? এটা এখন শেখ হাসিনার আমলের বিশ্ববিদ্যালয়।’

বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান সৈয়দ এহসানুল হুদার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাছের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, জেবা খান প্রমুখ।


 

You can share this post on
Facebook

0 Comments

If you want to comment please Login. If you are not registered then please Register First