ব্রেকিং নিউজ

পেঁয়াজের দাম আবার চড়া

news-details
অর্থনীতি

আমাদের প্রতিবেদক

বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কম নেই। তারপরও বিনা কারণে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। গত এক সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুন বেড়ে এখন ৫৫ টাকা থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে খুঁচরা বাজারে।

গত মার্চ মাসে করোনা ভাইরাসের আতঙ্ককে পুঁজি করে পেয়াজের দাম বাড়িয়ে ৮০ টাকা কেজি করা হয়েছিল। ওই সময় প্রশাসনের নজরে বিষয়টি এলে আবার দাম কমে যায়। তখন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের মোবাইল টিম ও র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত এক সঙ্গে অভিযান চালায়। আড়তদার ও পাইকারী বিক্রেতাদের বেশ কয়েকজনের জরিমানা করার পর হ্রাস পায় দাম। এরপর লকডাউন শুরু হলে পেয়াজের দাম কেজি প্রতি ৩০ টাকায় নেমে যায়। প্রায় সপ্তাহ দুই ধরে ৩০ টাকা থেকে ৩৫ টাকা ওঠানামা করে পেঁয়াজ। কিন্তু হঠাত্ করেই এ সপ্তাহে আবার লাফিয়ে ওঠে পেঁয়াজের দাম।
রাজধানীর শেওড়াপাড়ায় ভ্রাম্যমান পেঁয়াজ ব্যবসায়ী আকরাম আলী ভ্যানে করে বিক্রি করেন। তিনি কালের কণ্ঠকে জানান, বেশি দামে তাদের পাইকারী বাজার থেকে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। এই কারণে তাদেরকেও বেশি দামে বিক্রিও করতে হচ্ছে। সকাল ৯ টায় মিরপুর ১০ নম্বরের পাশে সেনপাড়ায়ও আরেকটি ভ্যানে পেঁয়াজ বিক্রি করতে দেখা যায়, কাউছার নামের একজনকে। তিনি বলেন, ‘আমরা ৫৫ টাকায় কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করি। বাজারে ঢুইকা দেখেন। দাম কত চায়।’ কেন দাম বেশি-জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, ‘রোজা আসতেছে, হেই কারণেই হয়তো দাম বাইড়া গেছে’। তিনি জানান, তারা ৫০ টাকা থেকে ৫২ টাকা করে পেয়াজ পাইকারী কিনতে হচ্ছে। 

গতকাল সকালে শেওড়াপাড়া, কাজিপাড়া, সেনপাড়া পর্বতার বেশ কয়েকটি বাজারে ঘুরে দেখা গেছে, পেয়াজ একটু ছোট সাইজ ৫৫ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। কেউ কেউ বাছাই করে একটু বড় সাইজের পেয়াজ পৃথক করে বিক্রি করছেন। বাছাই করা পেঁয়াজের মূল্য ৬০ টাকা করে বিক্রি করছেন বাজারের দোকানদাররা।

বেশ কয়েকজন দোকানদার জানান, তারা বেশি দামে পাইকারী বাজার থেকে কিনে আনছেন। এই কারণে বেশি দামে বিক্রি করা হচ্ছে। তবে তারা জানান, পাইকরাী বাজারে পেঁয়াজের কোনো ঘাটতি নেই।

কারওয়ান বাজারের একজন পাইকারী পেঁয়াজ বিক্রেতা বলেন, করোনা বাইরাসের কারণে ভারত থেকে পেঁয়াজ কম আসছে। অন্যদিকে গ্রামে গঞ্জের হাটবাজার চলছে সীমিত সময়ের জন্য। সেখান থেকেও পেঁয়াজ আসছে না। এ কারণেই দাম একটু বেশি। তবে তিনি জানান, তারা ৫০ টাকার নিচেই মূল্য রেখেছেন। খুঁচরা বিক্রেতারা একটু বেশি দাম নিচ্ছে।

শ্যামবাজার পেঁয়াজ ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজি মোহাম্মদ মাজেদ বলেন, শ্যামবাজারে আজ (বৃহস্পতিবার) ৪৮ টাকা কেজি দরে পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহের তুলনায় দাম বেশি এটা স্বীকার করে তিনি বলেন, গাড়ি-ঘোড়া চলে না। গ্রামে হাটবাজার ঠিকমতো বসে না। পেঁয়াজের সরবরাহ কম। ভারত থেকে আমদানি নেই বললেই চলে। এসবই করোনার কারণে। কাজেই দামতো বাড়বেই।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।