ব্রেকিং নিউজ

বিমানবন্দরে এমফিটামিন নামের বিপুল পরিমাণ নতুন মাদক জব্দ, আটক ৬

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক :

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তজার্তিক বিমানবন্দরে রপ্তানি কার্গো ভিলেজে ডুয়েল ভিউ স্ক্যানারে নিরাপত্তা তল্লাশির সময় রপ্তানি পোশাকের চালানে কোকেনসদৃশ ১৫ কেজি ৫৮ গ্রাম এমফিটামিন মাদক আটক করেছে এভিয়েশন সিকিউরিটির সদস্যরা। এ ঘটনায় ৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিমানবন্দরে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে রপ্তানি কার্গো স্ক্রিনিংয়ের সময় কোকেন সদৃশ্য মাদক আটক করা হলে তা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ সংস্থায় পাঠানো হয়। পরে তারা জানায় আটককৃত মাদকের নাম এমফিটামিন।  রপ্তানি চালানের সঙ্গে ১৫ কেজি ৫৮ গ্রাম মাদক আটক করেন এভিয়েশন সিকিউরিটির সদস্যরা। মাদকগুলো গার্মেন্টস পণ্যের মোড়কে আড়াল করে পাচার করা হচ্ছিলো।

বাংলাদেশের ইতিহাসে রপ্তানি কার্গোর সাথে এমফিটামিন জাতীয় মাদক পাচার হওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম। একটি বিদেশি কুরিয়ারের মাধ্যমে আটক হওয়া মাদক বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে হংকং হয়ে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার কথা ছিলো। তবে, কারা এসব মাদক রপ্তানি করছিল তা তদন্তের স্বার্থে বলা হয়নি। এই মাদক দিয়ে ইয়াবাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য তৈরি করা যায়।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদুল আহসান জানান, কার্গো চালানটিতে মোট ১৩০টি কার্টনের মধ্যে সাতটির ভেতরে মাদক ছিল। এই কার্টনগুলোর ভেতরে থাকা কাপড়ে বিশেষ একটি স্তর তৈরি করে মাদকগুলো পলিথিনের প্যাকেটে রাখা হয়েছিল। এছাড়া তার বাইরে একটি কার্বনেট আবরণ দেয়া ছিল। বিমানবন্দরের ই-স্কিনিং সিস্টেমকে ফাঁকি দিতে এই কৌশল ব্যবহার করা হয়েছে।

জব্দ করা নতুন ধরনের মাদক বিমানবন্দর থানায় স্থানান্তর করা হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলেও জানান বিমানবন্দরের পরিচালক।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।