ব্রেকিং নিউজ

কড়াইল বস্তিতে ছোট বোনকে হত্যা, কিশোর ভাই গ্রেপ্তার

news-details
জাতীয়

আমাদের প্রতিবেদক :

রাজধানীর বনানী জামাই বাজার এলাকায় কড়াইল বস্তিতে চার বছর বয়সী শিশু মিম আক্তার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে তার বড় ভাইকে আটক করেছে র‌্যাব। তার বয়স ১৪ বছর।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে র‌্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক মো. কামরুজ্জামান এ তথ্য সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কড়াইল বস্তির একটি বাসার গোসলখানা থেকে মিমের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয় তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

কামরুজ্জামান আরও বলেন, শিশুটির বাবার নাম মো. লিটন মিয়া (৩৯) ও মা রুপসানা আক্তার। লিটন আমড়া বিক্রি করেন এবং রুখসানা গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করেন। সকাল ৮টা থেকে মিমকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। মরদেহ উদ্ধারের পরে এ ঘটনায় লিটন মিয়া বাদী হয়ে বনানী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নম্বর: ৩২।

লিটন মিয়ার বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, তিন বছরের বেশি সময় ধরে লিটন মিয়া ওই ঠিকানায় সপরিবারে বসবাস করছেন। তার বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায়। গতকাল সকালে তারা স্বামী-স্ত্রী কাজে চলে যাওয়ার পরে বাসায় মিম আর তার বড় ভাই ছিল। বাসায় ফিরে মেয়েকে না পেয়ে খুঁজাখুঁজি শুরু হয়। পাশের আল-মিনা মসজিদের মাইকে নিখোঁজের ঘোষণা দেওয়া হয়। সকাল ১০টার দিকে বাসা থেকে কিছু দূরে গোসলখানায় মিমের মরদেহ পাওয়া যায়।

র‌্যাব আরও জানায়, প্রাথমিকভাবে গ্রেপ্তার কিশোর হত্যার দায় স্বীকার করেছে। তার ভাষ্য মতে, ছোট বোন মিম জন্মের পর থেকে তার প্রতি বাবা-মায়ের ভালোবাসা কমতে থাকে। যত দিন যায় বাবা-মা তার প্রতি উদাসিন হয়ে পড়ে। যে কারণে ঘুমন্ত মিমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বিছানার নিচে লুকিয়ে রাখে। তারপর সুবিধাজনক সময়ে মরদেহ গোসলখানায় রেখে আসে।


 

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।